Saturday, June 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

গ্রুপ সেরা বেলজিয়াম, সান্তনার জয় তিউনিসিয়ার

দ্বিতীয় পর্বে বেলজিয়াম খেলবে জাপানের বিপক্ষে আর ইংল্যান্ডের প্রতিপক্ষ হিসেবে আছে কলম্বিয়া।

আপডেট : ২৯ জুন ২০১৮, ১০:১৬ এএম

গ্রুপ পর্বের চূড়ান্ত ম্যাচে ইংল্যান্ডকে ১-০ গোলে হারিয়ে নকআউটে গ্রুপ সেরা হয়ে জায়গা করে নিল বেলজিয়াম। ‘জি’ গ্রুপে ইংল্যান্ড-বেলজিয়াম দুই দলই শেষ ম্যাচের আগে অবস্থান করছিল সমান পয়েন্ট নিয়ে। তাই ম্যাচের ফলাফল নিয়ে উত্তেজনা ছিল ভালই। শেষমেশ বেলজিয়াম হল ‘জি’ গ্রুপের গ্সেরা আর ইংল্যান্ড হল রানার্সআপ।দ্বিতীয় পর্বে বেলজিয়াম খেলবে জাপানের বিপক্ষে আর ইংল্যান্ডের প্রতিপক্ষ হিসেবে আছে কলম্বিয়া।

বেলজিয়াম দুই অর্ধেই এগিয়ে ছিল। যদিও ইংল্যান্ড রক্ষণে গিয়ে খেই হারিয়েছে প্রথমার্ধের আক্রমণ। দুই দলের শেষ ষোলো নিশ্চিত হওয়ায় নির্ভার ছিলেন দুই দলের কোচ। তাই বড় ধরণের পরিবর্তন আনেন এই ম্যাচে। ৮ টি পরিবর্তন আনেন ইংল্যান্ড কোচ গ্যারেথ সাউথগেট। শুরুর একাদশে রাখেননি হ্যারি কেইনকে। অন্য দিকে বেলজিয়ামও পরিবর্তন আনে ৯টি। তাতে চাপে পড়েছে ইংলিশরাই। ম্যাচের শুরুতে দ্বিতীয় মিনিটে আক্রমণে ছিল ইংল্যান্ড। তবে লক্ষ্যভেদ করতে পারেনি।

প্রথমার্ধে বেলজিয়াম সবচেয়ে বড় সুযোগটা পায় দশম মিনিটে। ১০ মিনিটে খুব কাছে চলে গিয়েছিল। জটলায় গোলমুখের কাছে বল পেয়ে যান বেলজিয়াম ফরোয়ার্ড বাটশুয়াই। গোলরক্ষক বল ধরতে না পারলেও গোল লাইনের একেবারে কাছ থেকে বল ক্লিয়ার করেন ইংলিশ ডিফেন্ডার গ্যারি কাহিল। অল্পের জন্য সুযোগ হাতছাড়া হয় বেলজিয়ামের। 

এই অর্ধে বারবার আক্রমণ-প্রতিআক্রমণে গিয়েছিল দুই দল। বেলজিয়াম গোলের কাছে শট নেওয়ার সুযোগ বেশি পেলেও লক্ষ্যভেদ হয়নি এই অর্ধে।

বিরতির পর আক্রমণে আরো সক্রিয় হয় বেলজিয়াম। ফল আসে ৫১ মিনিটে। টিলেমান্স নিজে শট না নিয়ে বল দেন ফরোয়ার্ড আদনান ইয়ানুজাইকে। আর তাতে কোনাকুনি শটে ইংল্যান্ডের জালে বল জড়ান তিনি।

শেষ দিকে আর ব্যবধানে হেরফের হয়নি। বেলজিয়াম গ্রুপসেরার আনন্দ নিয়েই মাঠ ছাড়ে।

গ্রুপের অপর ম্যাচে একই সময় মুখোমুখি হয়েছিল পানামা ও তিউনিসিয়া। দু দলের বিদায় নিশ্চিত হওয়া ম্যাচটি ছিল আনুষ্ঠানিকতার। তাতে পানামাকে ২-১ গোলে হারিয়ে সান্ত্বনার জয় পেয়েছে তিউনিসিয়া। সান্ত্বনা বলা হলেও জয় দিয়ে ইতিহাস গড়েছে তিউনিসিয়া। ৪০ বছর পর বিশ্বকাপে ম্যাচ জয়ের স্বাদ পেলো দলটি। সর্বশেষ তারা ম্যাচ জিতেছিল ১৯৭৮ সালে, মেক্সিকোর বিপক্ষে। তবে শুরুতে ৩৩ মিনিটে মেরিয়াহর আত্মঘাতী গোলের সুবাদে বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচ জয়ের স্বপ্ন দেখছিল এবারই বিশ্বকাপ খেলতে আসা পানামা। ৫১ ও ৬৬ মিনিটে গোল করে তাদের সেই স্বপ্ন ভেঙ্গে দেন ফরোয়ার্ড ইউসেফ ও ওয়াহবি খাজারি।  

এই গ্রুপে তিন ম্যাচে তিনটি জিতে ৯ পয়েন্ট নিয়ে সবার উপরে থেকে দ্বিতীয় রাউন্ডে গেল বেলজিয়াম। তিন ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় ইংল্যান্ড। ৩ পয়েন্ট নিয়ে ইংল্যান্ডের পরে তিউনিসিয়া। সব ম্যাচে হেরে সবার নিচে রয়েছে পানামার অবস্থান।

About

Popular Links