Saturday, June 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

নিউজিল্যান্ডের মাঠে টি-টোয়েন্টি জিততে বাংলাদেশের লক্ষ্য ১৩৫

নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৩৪ রান করেছে নিউজিল্যান্ড

আপডেট : ২৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ০১:৫৯ পিএম

ওয়ানডেতে সিরিজ হারলেও শেষ ম্যাচে কিউইদের মাটিতে প্রথমবার ওয়ানডে জয় কিছুটা হলেও আত্মবিশ্বাস বাড়িয়েছে টাইগারদের। সেই আত্মবিশ্বাস নিয়ে এবার টি-টোয়েন্টিতে নেমেছে নাজমুল হোসেন শান্তর দল। লক্ষ্য এবার প্রথমবারের মতো স্বাগতিকদের বিপক্ষে তাদের মাঠে টি-টোয়েন্টি জেতা।

আর সেই লক্ষ্যে প্রথম পর্বটা ভালোই কেটেছে সফরকারীদের। টাইগার বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৩৪ রান করেছে নিউজিল্যান্ড।

বুধবার (২৭ ডিসেম্বর) স্বাগতিকদের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে টস জিতে শুরুতে ফিল্ডিং করে বাংলাদেশ।

ইনিংসের প্রথম ওভারেই টিম সেইফার্টকে সাজঘরে ফিরিয়েছেন মেহেদি। দ্বিতীয় ওভারে বোলিংয়ে এসে রীতিমতো ঝড় তোলেন শরিফুল ইসলাম। দ্বিতীয় ও তৃতীয় বলে টানা দুই উইকেট তুলে নিয়েছেন এই পেসার।

৩ উইকেট হারানোর পর পুরোপুরি কোণঠাসা হয়ে পড়ে নিউজিল্যান্ড। সেখান থেকে তাদের টেনে তোলার চেষ্টায় ছিলেন ড্যারিল মিচেল। পঞ্চম ওভারে তাকে বিদায় দিয়েছেন শেখ মেহেদী। এই অফস্পিনারের ঘূর্ণি বলটি ব্যাটে বলে সংযোগ ঘটাতে পারেননি মিচেল। বোল্ড হয়েছেন ১৪ রানে।

২০ রানে চার উইকেট পতনের পর চাপে ছিল নিউজিল্যান্ড। এমন অবস্থাতে রান বাড়িয়ে নেওয়ার চেষ্টায় ছিলেন চ্যাপম্যান ও নিশাম। এই জুটি ভেঙে কিউইদের পঞ্চম উইকেট তুলে নেন লেগ স্পিনার রিশাদ হোসেন। তার প্রথম ওভারে মেরে খেলতে গিয়েছিলেন চ্যাপম্যান। ফলাফল বাউন্ডারি লাইনে তানজিম সাকিবের হাতে ক্যাচ দিয়েছেন তিনি। ফেরার আগে চ্যাপম্যান ১৯ বলে ১৯ রান করেন।

৫০ রানে পাঁচ উইকেট হারানোর পর মূল জুটিটাই গড়েছিলেন ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক স্যান্টনার ও নিশাম। দারুণ ব্যাটিংয়ে রান তুলছিলেন তারা। হুমকি হয়ে ওঠা ৪১ রানের এই জুটি ভেঙে স্বস্তি ফিরিয়েছেন শরিফুল। তার বল মিড উইকেটের ওপর দিয়ে খেলতে চেয়েছিলেন স্যান্টনার। সেটা দারুণভাবে তালুবন্দি করেন সৌম্য।

স্যান্টনারকে আউট করলেও প্রান্ত আগলে ঝড়ো ব্যাটিংয়ে মাথা ব্যথার কারণ হয়েছিলেন নিশাম। তার ব্যাটেই স্কোর শতরান ছাড়িয়েছে। আরও বিপজ্জনক হওয়ার আগেই তাকে তালুবন্দি করিয়েছেন মোস্তাফিজুর। তার ফুলটসে আফিফের হাতে ক্যাচ দিয়েছেন নিশাম। ফেরার আগে কিউই ব্যাটার ২৯ বলে ৪৮ রান করেন। 

নিশামের পর সাউদিকে দ্রুত ফেরানোর সুযোগ ছিল বাংলাদেশের। শরিফুলের ১৮তম ওভারে তার ক্যাচ উঠলেও সেটি নেওয়ার জন্য কেউ ছুটে যায়নি। তার পরের বলেই ছক্কা হাঁকান মিলনে। পরের ওভারে অবশ্য মোস্তাফিজের বুদ্ধিদীপ্ত বোলিংয়ে ৮ রানে ফিরে যান সাউদি। 

শেষ দিকে কিউইদের রান বাড়াতে সেভাবে সুযোগ দেয়নি বাংলাদেশ। বরং শেষ ওভারে নবম উইকেট হারিয়েছে স্বাগতিকরা। রিভিউ নিয়ে সোধিকে গ্লাভসবন্দি করিয়েছেন তানজিম সাকিব। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর: নিউজিল্যান্ড ২০ ওভারে ১৩৪/৯ (মিলনে ১৬*, সিয়ার্স ১*; সোধি ২, সাউদি ৮, নিশাম ৪৮, স্যান্টনার ২৩, চ্যাপম্যান ১৯, মিচেল ১৪, ফিলিপস ০, অ্যালেন ১, সেইফার্ট ০)

বাংলাদেশ একাদশ: লিটন দাস, সৌম্য সরকার, নাজমুল হোসেন শান্ত (অধিনায়ক), রনি তালুকদার, তাওহীদ হৃদয়, আফিফ হোসেন, শেখ মেহেদী হাসান, রিশাদ হোসেন, শরিফুল ইসলাম, তানজিম হাসান সাকিব ও মোস্তাফিজুর রহমান।

নিউজিল্যান্ড একাদশ: টিম সেইফার্ট (উইকেটরক্ষক), ফিন অ্যালেন, ড্যারিল মিচেল, গ্লেন ফিলিপস, মার্ক চ্যাপম্যান, জেমস নিশাম, মিচেল স্যান্টনার (অধিনায়ক), অ্যাডাম মিলনে, টিম সাউদি, ইস সোধি, বেন সিয়ার্স।

About

Popular Links