Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

কিশোর গুলার যখন ক্রুস-মদ্রিচের ‘বড় ভাই’

এই ডাকনামের পেছনে লুকিয়ে আছে গুলারের পারিবারিক সুশিক্ষা

আপডেট : ৩০ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৫৬ পিএম

আর্দা গুলার। স্প্যানিশ ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদের বহুল আলোচিত এক প্রতিভা। মাত্র ১৯ বছর বয়সী এই ফুটবলার প্রায়ই আসেন সংবাদ শিরোনামে। মাদ্রিদের হয়ে এ পর্যন্ত ছয়টি আনুষ্ঠানিক ম্যাচ খেলেছেন “তুর্কি মেসি”-খ্যাত এই ফুটবলার। অল্প সময়ের জন্য খেললেও ঝলক দেখিয়েছেন তিনি। করেছেন দু’টি গোল।

গুলার হয়ত নিজেকে চেনাবেন তার স্বদেশি মেসুত ওজিলের মতো করে। হয়ত হয়ে উঠবেন মাদ্রিদের আক্রমণভাগের মধ্যমণি। প্রতিভা ঠিকঠাক বিকশিত হলে সেই আশা করতেই পারেন ক্লাব ভক্তরা। এক্ষেত্রে বড় ভূমিকা রাখতে পারে লস ব্ল্যাঙ্কোসদের ড্রেসিংরুম। সেখানে তিনি যে ভালো আছেন, সেটা বোঝা যায় গুলারের কথায়ই।

১৯ বছর বয়সী এই কিশোরই এখন মাদ্রিদ ড্রেসিংরুমের বড় ভাই! মদ্রিচ ক্রুসরা তাকে এই বলেই সম্বোধন করেন।

কেন এই ডাকনাম? এখানে উঠে আসে তুর্কি ফুটবলারের পারিবারিক সুশিক্ষা। গুলার বলেন, “আমি ক্রুস কিংবা মদ্রিচকে তাদের নাম ধরে ডাকতে পারি না। এমন করলে মনে হয় আমি তাদের সঙ্গে বেয়াদবি করছি। আমি তাদের টনি ভাই এবং লুকা ভাই বলে ডাকি। এ কারণে তারাও আমাকে ভাই বলে ডাকেন।”

গোলরক্ষককে বোকা বানিয়ে গোল করেন গুলার/এএফপি

বয়সে ছোট আর্দা ক্লাবের দুই জ্যেষ্ঠ খেলোয়াড়কে সম্বোধন করেন “আবি”। তুর্কি শব্দটি সাধারণত ব্যবহৃত হয় বড় ভাই বা বয়ঃজ্যেষ্ঠ কাউকে সম্বোধনের ক্ষেত্রে।

মজার কথা হলো জার্মান ক্রুস আর ক্রোয়েট মদ্রিচ “আবি” শব্দটির অর্থ জানেন না। তাই তারাও পুচকে গুলারকে ডাকেন “আবি” অর্থাৎ বড় ভাই। এভাবেই গুলার হয়ে উঠেছেন মাদ্রিদ ড্রেসিংরুমের বড় ভাই।

সবশেষে ফেনারবাখ ছেড়ে মাদ্রিদে যোগ দেওয়ার বিষয়ে এই তরুণ তুর্কি বলেন, “আমি ফেনারবাখে আরও এক বছর থাকতে পারতাম। কিন্তু আমি বিশ্বকে দেখাতে চাই একজন তরুণ তুর্কি খেলোয়াড়ের সামর্থ্য। আশা করি এখানে আমি সফল হব।”

About

Popular Links