Saturday, June 15, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

বিতর্কিত উইকেটে খেলতে নামছে ভারত-পাকিস্তান

ভারত-পাকিস্তান ম্যাচকে ছাপিয়ে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে নিউইয়র্কের নাসাউ কাউন্টি স্টেডিয়ামের উইকেট

আপডেট : ০৯ জুন ২০২৪, ১১:২৬ এএম

চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সবচেয়ে হাই-ভোল্টেজ ম্যাচে রবিবার মুখোমুখি হতে যাচ্ছে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত-পাকিস্তান। ম্যাচটি হবে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের নাসাউ কাউন্টি স্টেডিয়ামে। ভারত-পাকিস্তান ম্যাচকে ছাপিয়ে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে নিউইয়র্কের নাসাউ কাউন্টি স্টেডিয়ামের উইকেট। এই উইকেটে ব্যাটিং করাটা ব্যাটারদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জিং হয়ে দাঁড়িয়েছে। ইতোমধ্যে তিনটি ম্যাচ থেকে সেই প্রমাণও মিলেছে। তাই ভারত-পাকিস্তান ম্যাচকে প্রাণবন্ত করতে হাই-স্কোরিং উইকেট তৈরিতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলও (আইসিসি)।

“এ” গ্রুপে থাকা ভারত-পাকিস্তানের ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত ৮টা ৩০ মিনিটে।

গত সোমবার শ্রীলঙ্কা-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচ দিয়েই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয় নিউইয়র্কের নাসাউ কাউন্টি স্টেডিয়ামের। ঐ ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে ১৯.১ ওভারে মাত্র ৭৭ রানে অলআউট হয় শ্রীলঙ্কা। ৭৮ রানের টার্গেট স্পর্শ করতে ১৭ ওভার পর্যন্ত খেলতে হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকাকে।

এরপর একই ভেন্যুতে খেলতে নেমে হিমশিম খেয়েছে ভারত ও আয়ারল্যান্ডের ব্যাটাররা। প্রথমে ব্যাট করে ৯৬ রানে গুটিয়ে যায় আইরিশরা। ১৩তম ওভারে টার্গেট স্পর্শ করে ৮ উইকেটে জয় পায় ভারত। কিন্তু ঐ ম্যাচে উইকেটের অস্বাভাবিক বাউন্সে হাতে ও পেটে ব্যথা পান দুই দলের বেশকিছু ক্রিকেটার। এরমধ্যে কনুইর উপরের অংশে আঘাত পেয়ে আহত হয়ে অবসর নেন ভারতের অধিনায়ক রোহিত শর্মা।

ঐ দু’ম্যাচ পর টনক নড়ে আইসিসির। নাসাউ কাউন্টি স্টেডিয়ামের উইকেটকে ব্যাটারদের জন্য উপযোগী করে তুলতে আয়োজক যুক্তরাষ্ট্রকে নিয়ে মাঠে নামে আইসিসি।

আইসিসি ও যুক্তরাষ্ট্র নতুনভাবে উইকেট দেখভাল শুরু করার পর শুক্রবার ঐ ভেন্যুতে খেলতে নামে কানাডা ও আয়ারল্যান্ড। প্রথমে ব্যাট করে কানাডা ৭ উইকেটে ১৩৭ এবং পরে আয়ারল্যান্ড ৭ উইকেটে ১২৫ রান করে। তারপরও এই ভেন্যুর উইকেট নিয়ে সন্তুষ্ট নয় আইসিসি।

আইসিসির এক কর্মকর্তা বলেন, “আইসিসি এবং টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আয়োজকরা বুঝতে পারছে যে নাসাউ স্টেডিয়ামের উইকেট সন্তুষ্টজনক নয়। ইতোমধ্যে আমরা নতুনভাবে কাজ শুরু করেছি। বাকি ম্যাচের কথা ভেবে উইকেট ঠিক করার চেষ্টা চলছে। আশা করা হচ্ছে, ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে ভালো কিছু হবে।”

নিউইয়র্ক থেকে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ সরিয়ে ফেলা হতে পারে বরে গুঞ্জনও উঠেছিল। কিন্তু  ম্যাচের সকল আয়োজন সম্পন্ন হওয়ায় সেটা আর সম্ভব নয় বলে জানায় আইসিসির ঐ কর্মকর্তা। তিনি বলেন, “ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে ৩০,০০০ দর্শক মাঠে থাকবেন। তারা টিকিট কিনে ফেলেছেন। ফলে এই ম্যাচ নিউইয়র্ক থেকে সরিয়ে দেওয়া সম্ভব নয়।”

ম্যাচের ভেন্যু পরিবর্তন হবে- তবে এমন গুঞ্জনে কান না দিয়ে  বিশ্বকাপের সবচেয়ে জমজমাট ম্যাচের জন্য প্রস্তুতি সেরে রেখেছে ভারত ও পাকিস্তানের খেলোয়াড়রা। ভারত অধিনায়ক রোহিত বলেন, “উইকেট নিয়ে উদ্বেগ অবশ্যই আছে। কিন্তু কিছু করার নেই। এই উইকেটেই খেলতে হবে, যেহেতু আগের থেকেই সূচি নির্ধারিত। আমরা ম্যাচের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুতি নিয়েছি। এখন মাঠের লড়াইয়ে নামার পালা।”

নিজেদের প্রথম ম্যাচে আয়ারল্যান্ডকে ৮ উইকেটে হারিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করেছে ২০০৭ সালের চ্যাম্পিয়ন ভারত। পাকিস্তানের বিপক্ষেও জয় ছাড়া অন্য কিছু ভাবছে না টিম ইন্ডিয়া। রোহিত বলেন, “পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ সবসময়ই উত্তেজনাপূর্ণ ও মর্যাদার। এ ম্যাচে বাড়তি চাপ থাকে। আমরা চাপকে দূরে সরিয়ে মাঠে নিজেদের সেরাটা উজাড় করে দিতে চাই এবং জয় নিয়ে মাঠ ছাড়াই লক্ষ্য আমাদের। প্রথম ম্যাচে আমাদের ব্যাটিং-বোলিং খুব ভালো ছিল। আশা করি পাকিস্তানের বিপক্ষেও দলের ব্যাটার ও বোলাররা ভালো করবে।”

অন্যদিকে, ভারত জয় দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করলেও হতাশা নিয়ে অভিযান শুরু করেছে টুর্নামেন্টের আরেক ফেভারিট পাকিস্তান। নিজেদের প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক যুক্তরাষ্ট্রের কাছে সুপার ওভারে পরাজিত হয়ে আসর শুরু করেছে পাকিস্তান।  ওই ম্যাচে দলের পারফরমেন্সে খুশি হতে পারেননি ৪৩ বলে ৪৪ রান করা পাক অধিনায়ক বাবর আজম। ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ঘুরে দাঁড়াতে চান বাবর।

তিনি বলেন, “প্রথম ম্যাচে আমরা তিন বিভাগেই খারাপ খেলেছি। আশা করছি, ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ঘুরে দাঁড়াতে পারব। যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে ম্যাচের পর, আমরা নিজেদের মধ্যে আলোচনা করেছি এবং ঘুরে দাঁড়াতে নিজেদের সেরা পারফরমেন্স উজাড় করে দিতে বদ্ধপরিকর। ভারত শক্তিশালী দল। তাদের ব্যাটার-বোলাররা দারুণ ছন্দে আছে। আমরাও তাদের সামলাতে সব ধরণের প্রস্তুতি ও পরিকল্পনা নিয়েছি। মাঠের লড়াইয়ে সেরাটা দিতে পারলে, সাফল্য নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারবো আমরা।”

নিউইয়র্কের উইকেট নিয়ে বাবর বলেন, “নিউইয়র্কের উইকেট নিয়ে অনেক আলোচনা হচ্ছে। আমরা সেখানে খেলিনি, তাই আমাদের ধারনা কম। তবে সেখানে হওয়া তিনটি ম্যাচ দেখেছি। তাতে মনে হচ্ছে, ওমন উইকেটে ব্যাট করা কঠিন হবে। উইকেটের পরিস্থিতি বুঝে খেলতে হবে।”

তবে সব ছাপিয়ে আবহাওয়া কারণে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ দেখার দীর্ঘদিনের স্বপ্ন পানিতে ভেসে যেতে পারে যুক্তরাষ্ট্রবাসীর। সেখানকার আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, পুরো দিনজুড়েই নিউইয়র্কে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। স্থানীয় সময় সকালে ১১টায় ৫১% বৃষ্টিপাত হতে পারে। এর মানে, খেলা শুরুর আধ ঘণ্টার মধ্যেই বৃষ্টি নামতে পারে। বিকেল ৪টা পর্যন্ত প্রায় ৪৫-৫০% বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

টি-টোয়েন্টিতে এখন পর্যন্ত ১২বার মুখোমুখি হয়েছে ভারত-পাকিস্তান। ভারতের জয় ৮টিতে ও পাকিস্তানের জয় ৩ ম্যাচে। একটি ম্যাচ টাই হয়। ২০০৭ সালে প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে টাই হয়েছিল ভারত ও পাকিস্তান ম্যাচটি। পরে বোল আউটে ম্যাচ জিতে নেয় ভারত। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সাতবার দেখা হয়েছে দু’দলের। এখানে ভারতের জয় ৬টিতে, পাকিস্তানের জয় ১টিতে।

পাকিস্তান দল: বাবর আজম (অধিনায়ক), মোহাম্মদ রিজওয়ান, সাইম আইয়ুব, ফখর জামান, উসমান খান, আজম খান, ইফতিখার আহমেদ, ইমাদ ওয়াসিম, শাদাব খান, মোহাম্মদ আমির, শাহিন শাহ আফ্রিদি, নাসিম শাহ, আব্বাস আফ্রিদি, হারিস রউফ ও আবরার আহমেদ।

ভারত দল: রোহিত শর্মা (অধিনায়ক), হার্দিক পান্ডিয়া (সহ-অধিনায়ক), যশস্বী জয়সওয়াল, বিরাট কোহলি, সূর্যকুমার যাদব, ঋষভ পান্থ (উইকেটরক্ষক), সঞ্জু স্যামসন (উইকেটরক্ষক), শিবম দুবে, রবীন্দ্র জাদেজা, অক্ষর প্যাটেল, কুলদীপ যাদব, যুজবেন্দ্রা চাহাল, আর্শদীপ সিং, জসপ্রিত বুমরাহ, মোহাম্মদ সিরাজ।

About

Popular Links