Saturday, June 15, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

লিটনের ৩৮ বলে ৩৬ রানের ইনিংস উপভোগ করেননি তামিম

তামিম বলেন, ‘লিটন খুবই নিরাপদে খেলেছে, এটা আমি উপভোগ করিনি’

আপডেট : ০৯ জুন ২০২৪, ০৫:৫১ পিএম

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে সহজ লক্ষ্য বেশ কঠিন করেই জিতেছে বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১২৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৮টি উইকেট হারিয়েছিল তারা। এই ম্যাচে ব্যাট হাতে উল্লেখযোগ্য অবদান ছিল তাওহিদ হৃদয়, লিটন দাস ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের

যদিও রান তাড়ার কৌশলটা উপভোগ করতে পারেননি দলের বাইরে থাকা টাইগার ওপেনার তামিম ইকবাল। তার মতে, লিটন দাসের আরও আক্রমণাত্মক হওয়ার সুযোগ ছিল। তবে তাওহিদ হৃদয়ের আক্রমণাত্মক ইনিংসের প্রশংসা করেছেন তামিম।

ইএসপিএন ক্রিকইনফোতে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ম্যাচ বিশ্লেষণ করতে তামিম বলেছেন, “১২০-১২৫ রান তাড়া করতে গেলে শুরুর তিন ব্যাটসম্যানের মধ্যে যেকোনো একজনের এমন কৌশলেই (আক্রমণাত্মক) খেলা উচিত।”

তামিম বলেছেন, “বাংলাদেশ যেভাবে রান তাড়া করেছে, সেটা আমি উপভোগ করিনি। উইকেটের বিষয়ে কথা বলছি না। টি-টোয়েন্টিতে ১২০-১২৫ রান খুবই জটিল একটা স্কোর।”

তিনি বলেন, “এই রান তাড়া করার সবচেয়ে ভালো কৌশল হচ্ছে শীর্ষ তিন থেকে কারও দ্রুত রান তোলার চেষ্টা করা। প্রথম ৬ ওভারে দ্রুত রান তুলতে পারলে এটি সহজ হয়ে যায়। তাতে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানরা রান রেটের চাপে পড়বে না।”

শনিবার (৮ জুন) ম্যাচের শুরুতেই ফিরে যান সৌম্য সরকার ও তানজিদ হাসান। তিন নম্বরে উইকেটে আসা লিটন আক্রমণাত্মক না হয়ে উইকেটে টিকে থাকতেই বেশি মনোযোগী ছিলেন। আউট হওয়ার আগে করেছেন ৩৮ বলে ৩৬ রান।

লিটনের এমন ব্যাটিং উপভোগ করেননি তামিম। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “আমাদের এমন একটা সুযোগ (আক্রমণাত্মক হওয়ার) ছিল। হ্যাঁ, শুরুতেই আমাদের এক-দুইটা উইকেট পড়েছে, এরপরও লিটনের সুযোগ ছিল আরেকটু আক্রমণাত্মক খেলার।”

তামিম বলেন, “ও খুবই নিরাপদে খেলেছে, এটা আমি উপভোগ করিনি। শুধু একজন ব্যাটসম্যানের কথা বলছি না, পুরো দলের কথা বলছি।”

তবে তাওহিদ হৃদয়ের প্রশংসা করেছেন তামিম। হৃদয়ের ২০ বলে ৪০ রানের ইনিংস নিয়ে তামিম বলেন, “অনেক কৃতিত্ব তাওহিদ হৃদয়কে দিতে হবে। ওর ২০ বলে ৪০ রানের ইনিংস দেখলে মনে হয় ও-ই (জয়ের) পরিস্থিতি তৈরি করে দিয়েছে।”

About

Popular Links