• বুধবার, নভেম্বর ২০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৪:৪৩ বিকেল

জুভেন্টাসকে বিদায় বললেন বুফন

  • প্রকাশিত ০৭:৩৩ রাত মে ১৮, ২০১৮
জুভেন্টাসকে বিদায় বললেন বুফন
শনিবার জুভেন্টাসে শেষ ম্যাচ, নিশ্চিত করলেন বুফন

আর একটি ম্যাচ, তারপর আর কখনও জুভেন্টাসের জার্সিতে দেখা যাবে না জিয়ানলুইজি বুফনকে। সিরি  তে শনিবার ভেরোনার বিপক্ষে শেষবার তুরিন জায়ান্টদের হয়ে মাঠে নামবেন এই অভিজ্ঞ গোলরক্ষক।

এই মৌসুম শেষে জুভেন্টাস ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন বুফন। ১৭ বছরের ক্লাবকে বিদায়ের পর অন্য কোনও ক্লাবে খেলবেন নাকি গ্লোভ জোড়া তুলে রাখবেন সেটা তিনি জানাবেন আরও কয়েক সপ্তাহ পর।

বৃহস্পতিবার তুরিনের সংবাদ সম্মেলনে বুফন বলেছেন, জুভেন্টাসের হয়ে শনিবার আমার শেষ ম্যাচ। দুটি কাপসহ প্রেসিডেন্ট ও পুরো দল পাশে থাকবে, এটা হবে বিশেষ কিছু। জুভেন্টার পরিবার ও পুরো ক্লাবকে আমি ধন্যবাদ দিতে চাই। আপনাদের কাছে আমি চিরকৃতজ্ঞ।

অবসর নেবেন নাকি খেলা চালিয়ে যাবেন সেটা নিশ্চিত করেননি ৪০ বছর বয়সী গোলরক্ষক, শনিবার আমি একটি ম্যাচ খেলব এবং এটাই এখন কেবল নিশ্চিত ব্যাপার। আন্দ্রে আগনেয়ির (প্রেসিডেন্ট) সঙ্গে আমরা সবসময় কথা বলছি। আমার জীবনে কী ঘটছে সব তিনি জানেন। তিনি একজন উপদেষ্টা, তার মত ছাড়া কোথাও যতে চাই না। শনিবারের পর আমি কিছুটা শান্ত হব, তারপর হয়তো কোনও সিদ্ধান্ত নেব।

জুভেন্টাসের প্রেসিডেন্ট আন্দ্রে আগনেয়িা নিশ্চিত করেছেন অন্য ক্লাবগুলোর কাছ থেকে প্রস্তাব ভেবে দেখছেন বুফন। তিনি বলেছেন, তার যে কোনও পছন্দে আমার পূর্ণ সমর্থন থাকবে। সে অনেক প্রস্তাব পেয়েছে, খেলোয়াড় হিসেবে ও মাঠের বাইরের কোনও দায়িত্বে। শেষ ম্যাচের জন্য তাকে শুভ কামনা। আমি শুধু এটুকু বলতে চাই, জিজি তোমাকে অনেক ধন্যবাদ।

২৩ বছরের ক্যারিয়ারে বুফন কেবল দুটি ক্লাবে খেলেছেন। পার্মায় শুরু করা এ গোলরক্ষক ৫২ মিলিয়ন ইউরোতে ২০০১ সালে যোগ দেন জুভেন্টাসে। সবচেয়ে বেশি শিরোপা জয়ী গোলরক্ষকের মর্যাদা এখন তার।

সমৃদ্ধশালী ক্যারিয়ারে বুফন ৯টি সিরি  জিতেছেন এবং ১৯৯৯ সালে হাতে নিয়েছেন উয়েফা কাপও। তবে তার সবচেয়ে বড় অর্জন ২০০৬ সালে ইতালির হয়ে বিশ্বকাপ শিরোপা।

তবে এই ক্লাবে শেষটা হতাশায় কাটল তার। আরেকবার অধরা চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপার হাতছানি পেয়েও ব্যর্থ হন বুফন। সবশেষ ২০১৫ ও ২০১৭ সালের ফাইনালে এই অপ্রাপ্তির দুঃখ ঘোচাতে পারেননি তিনি। এবারও অল্পের জন্য কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বিদায় নিতে হয়েছে তার দলকে।

তাতে অবশ্য ভক্তদের ভালোবাসায় কোনও কমতি হয়নি। ১৭ বছর ধরে যিনি গোলপোস্টের নিচে দেয়াল গড়ে তুলেছেন, তাকে অফুরন্ত ভালোবাসায় বিদায় জানানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে ভক্ত-সমর্থকরা। জুভেন্টাসের জার্সিতে ৬৫৬তম ম্যাচে এক আবেগঘন বিদায়ের অপেক্ষায় বুফন।