• বুধবার, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৩০ দুপুর

পাকিস্তানকে ৩৭ রানে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ

  • প্রকাশিত ০৫:৪৫ সন্ধ্যা সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৮
বাংলাদেশ
পাকিস্তানকে ৩৭ রানে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ। ছবিঃ এএফপি

সর্বশেষ,  পাকিস্তান:  রান- ২০২/৯; ওভার-৫০


৩৭ রানের জয় টাইগারদের

নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৯ উইকেট হারিয়ে ২০২ রান সংগ্রহ করেছে পাকিস্তান।

জয়ের জন্য ১টি উইকেট প্রয়োজন বাংলাদেশের!

৯ম উইকেটের পতন

মোহাম্মাদ নেওয়াজকে আউট করে নিজের ৪র্থ উইকেট তুলে নিলো মুস্তাফিজ।

৪৫ ওভার শেষ

৪৫ ওভার শেষে ৮ উইকেটে ১৮৬ রান পাকিস্তানের।

হাসান আলীকে ফেরালো মুস্তাফিজ

৮ম উইকেটের পতন।

৭ম উইকেটের পতন

বাংলাদেশের চিন্তার কারণ হয়ে ওঠা ইমাম উল হককে স্ট্যাম্পিংয়ের ফাঁদে ফেললেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। ১০৫ বল খেলে ৮৩ রান করেছেন এই পাকিস্তানি মিডল অর্ডার।

৪০ ওভার শেষ

৪০ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে পাকিস্তানের সংগ্রহ ১৬৫ রান।

৬ষ্ঠ উইকেটের পতন

৩৫ ওভার শেষ

৩৫ ওভার শেষে ১৪০ রানে পাকিস্তান। ১৫ ওভারে প্রয়োজন ১০০ রান। হাতে আছে ৫ উইকেট।

আসিফ আলীর ক্যাচ মিস ফেলে দিলেন লিটন দাস

৩০ ওভার শেষ

৩০ ওভার শেষে ব্যাকফুটে পাকিস্তান। ৫ উইকেট হারিয়ে সংগ্রহ ১০৮ রান।

৫ম উইকেটের পতন

সৌম্য সরকারের অসাধারণ বাউন্সারে কট বিহাইন্ডের শিকার হয়ে সাজঘরে ফিরলেন ২৪ বলে ৪ রান করা শাদাব খান।

২৫ ওভারে শেষ

২৫ ওভারে ৯৪ রান সংগ্রহ করতে ৪ উইকেট হারিয়েছে পাকিস্তান।

৪র্থ উইকেটের পতন

রুবেল হোসেনের বলে মাশরাফির দূর্দান্ত ক্যাচে প্যাভিলিওনে সোয়েব মালিক। ৫১ বলের মুখোমুখি হয়ে ৩০ রান করেছেন এই ব্যাটসম্যান।

২০ ওভার শেষ

২০ ওভার শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে ৮৫ রান সংগ্রহ করেছে পাকিস্তান। সোয়েব মালিক ও ইমামুল হকের জুটিতে বিপর্যয় কাটিয়ে উঠেছে তারা। 

১৫ অভার শেষ

১৫ ওভার শেষে ৩ উইকেটে ৫৬ রান পাকিস্তানের।

১০ ওভার শেষ

১০ ওভার শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে পাকিস্তানের সংগ্রহ ৩৭ রান।

ব্যাটিং ধ্বসে পাকিস্তান

মুস্তাফিজ-মিরাজের ঝাঁঝাঁলো বোলিংয়ের সামনে নিষ্প্রভ পাকিস্তান টপ অর্ডার।

৫ ওভার শেষ

৫ ওভার শেষে ২১ রানে চলে গেছে ৩ উইকেট। মুস্তাফিজ নিয়েছেন ২টি ও মিরাজের শিকার একটি।

২৪০ রানের টার্গেটে ব্যাট করছে পাকিস্তান


আরও পড়ুন মুশফিক-মিঠুন নৈপুণ্যে ২৪০ রানের চ্যালেঞ্জিং টার্গেট পাকিস্তানকে



৪৮.৫ ওভারে ২৩৯ রানে অলআউট বাংলাদেশ।

৪৫ ওভার শেষ

৪৫ ওভার শেষে ২২১ রানে ৬ উইকেট বাংলাদেশের।

'নার্ভাস নাইনটি'র শিকার মুশফিক

১ রানের আক্ষেপে ব্যক্তিগত ৯৯ রানে থামলো মুশফিকের মহামূল্যবান 

৪০ ওভার শেষ

৪০ ওভার শেষে ৫ উইকেটে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১৮৭ রান।

৫ম উইকেটের পতন

১০ বল খেলে ৯ রান সংগ্রহ করে প্যাভিলনে ইমরুল কায়েস।

৩৫ ওভার শেষ

৩৫ ওভার শেষে ১৬৩ রানে ৪ উইকেট বাংলাদেশের।

ভাঙলো মুশফিক-মিঠুন জুটি

৮৮ বলে ৬০ রান করে হাসান আলীর কট অ্যান্ড বোল্ডের শিকার মিঠুন।

৩০ ওভার শেষ

৩০ তম ওভার শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে ১৩৮ রান বাংলাদেশের।

অর্ধ্বশতক করলেন মিঠুন

৬৬ বলে ৫০ রান করে চলতি এশিয়া কাপে ২য় অর্ধ্বশত তুলে নিলেন তিনি।

২৫ ওভার শেষ:

২৫ তম ওভার শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে ১০৭ রান বাংলাদেশের। 

মুশফিকের অর্ধ্বশতক 

১০০ রানের মাইলফলক

২৪.১ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ১০১ রানে বাংলাদেশ

২০ তম ওভার শেষ:

২০ তম ওভার শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে ৮৩ রান বাংলাদেশের।

১৫ তম ওভার শেষ:

১৫ ওভার শেষে ৩ উইকেটে  ৫৫ রান সংগ্রহ করেছে বাংলাদেশ।  

১০ম ওভার শেষ :

১০ ওভার শেষে ৩ উইকেটে ২৮ রান বাংলাদেশের। ইনিংস মেরামতের চেষ্টায় মুশফিক-মিঠুন জুটি।

ডিআরএস নষ্ট হলো পাকিস্তানের

মোহম্মদ মিঠুনের এলবিডাব্লিউ  সিদ্ধান্তে ডিসিশন রিভিউ করে ব্যর্থ পাকিস্তান। লেগ স্ট্যাম্পের বাইরে দিয়ে যাচ্ছিলো বলটি।

ব্যাটিং বিপর্যয়ে বাংলাদেশ

৫ম ওভার শেষে ৩ উইকেটে ১২ রান বাংলাদেশের।  ক্রিজে আছেন মুশফিকুর রহিম ও মোহম্মদ মিঠুন।

প্যাভিলিওনে লিটন দাস

১৬ বলে ৬ রান করে জুনাইদ খানের শিকার ওপেনার লিটন দাস। 

৪ ওভারেই আউট টপ অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যান। 

আস্থার প্রতিদান দিতে পারলেন না মমিনুল

দীর্ঘদিন পর দলে সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারলেন না মমিনুল। ৪ বলে ৫ রান করে আউট হলেন শাহীন আফ্রিদির বলে।  

আবারও ব্যর্থ সৌম্য সরকার

৩য় ওভারের ৫ম বলে শুণ্য রানে জুনাইদ খানের বলে বিদায় সৌম্য।

টসে জিতে ব্যাট করছে  বাংলাদেশ

টসে জিতে ব্যাট করছে বাংলাদেশ। দলে সুযোগ পেয়েছে সৌম্য সরকার, নেই সাকিব আল হাসান।

এশিয়া কাপ ২০১৮’র ফরম্যাট বা ফিক্সচারে আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো সেমিফাইনাল না থাকলেও সুপার ফোরের পয়েন্ট তালিকা বলছে অন্য কথা। আজ বিকেলে বাংলাদেশ-পকিস্তানের ম্যাচটি হয়ে গেছে এক অঘোষিত সেমিফাইনাল।

টাইগারদের একাদশে তিনটি পরিবর্তন এসেছে। নাজমুল হোসেন শান্তর পরিবর্তে একাদশে ফিরেছেন সৌম্য সরকার।

অন্যদিকে ইনজুরির কারণে খেলছেন না সাকিব আল হাসান। তার পরিবর্তে ফিরেছেন মুমিনুল হক। এছাড়া স্পিনার নাজমুল ইসলাম অপুর পরিবর্তে খেলবেন পেসার রুবেল হোসেন।

বাংলাদেশ দল: লিটন কুমার দাস, সৌম্য সরকার, মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, ইমরুল কায়েস, মেহেদি হাসান, মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), রুবেল হোসেন ও মোস্তাফিজুর রহমান।

পাকিস্তান একাদশ: ফখর জামান, ইমাম উল হক, সরফরাজ আহমেদ (অধিনায়ক), আসিফ আলী, শোয়েব মালিক, সাদাব খান, বাবর আজম, হাসান আলী, মোহাম্মদ নওয়াজ, জুনায়েদ খান ও শাহেন শাহ আফ্রিদি।