• রবিবার, জুলাই ২১, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৩:৩৭ বিকেল

লা লিগায় বার্সা ও রিয়ালের প্রথম পরাজয়

  • প্রকাশিত ০৮:০৯ রাত সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৮
লা লিগায় বার্সেলোনার  পরাজয়
লা-লিগায় পৃথক পৃথক ম্যাচে হেরেছে স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনা এবং রিয়াল মাদ্রিদ। ছবি: সংগৃহীত।

দুই দলের জন্যই এটা ছিল মৌসুমের প্রথম পরাজয়। 

লা-লিগায় পৃথক পৃথক ম্যাচে হেরেছে স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনা এবং রিয়াল মাদ্রিদ। দুই দলের জন্যই এটা ছিল মৌসুমের প্রথম পরাজয়। 

লিগানেসের বিপক্ষে ২-১ গোলের ব্যবধানে হেরেছে স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা। তবে, ম্যাচের শুরুটা দারুণভাবে করেছিল এই মৌসুমে দুর্দান্ত শুরু করা বার্সেলোনা। মেসির পাস থেকে অসাধারণ এক ভলিতে ম্যাচের ১২’ মিনিটেই বার্সেলোনাকে এগিয়ে দেন ব্রাজিলিয়ান তারকা কুটিনহো। এরপর মেসির দারুণ একটি শট বারে লেগে ফিরে আসলে প্রথমার্ধ ১-০ গোলে এগিয়ে থেকেই শেষ করে বার্সা। দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেও আক্রমন চালাতে থাকে বার্সেলোনা। তবে কিছু সহজ সুযোগ হাতছাড়া করে স্প্যানিশ জায়ান্টরা। এরপর হোম ম্যাচের সুযোগ নিয়ে ৫২’ মিনিটে গোল করেন স্বাগতিক দলের নাবিল এল আজার। এরপর মাত্র এক মিনিটের ব্যবধানে বার্সা ডিফেন্ডার পিকের মারাত্মক ভুলে স্বাগতিকদের পক্ষে দ্বিতীয় গোল করেন অস্কার রড্রিগেজ। এটি ছিল বার্সার ইতিহাসে সবচেয়ে কম সময়ের ব্যবধানে ২ গোল হজমের রেকর্ড। এরপরে আর কোন গোল না হলে মৌসুমের প্রথম পরাজয়ের শিকার হয় বার্সেলোনা। উল্লেখ্য, মেসি ২০১৬ সালের পর এই প্রথম বার্সার জার্সিতে লা-লিগায় হারের মুখ দেখলেন। 

অন্যদিকে, দিনের পরের ম্যাচে সেভিয়ার বিপক্ষে অ্যাওয়ে ম্যাচে ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত হয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। এটি ছিল চলতি মৌসুমে রিয়াল মাদ্রিদের প্রথম পরাজয়। দিনের প্রথম খেলায় বার্সা হেরে যাওয়ায় লীগ টেবিলে এগিয়ে যাওয়ার দারুণ সুযোগ থাকলেও তা কাজে লাগাতে ব্যর্থ হয় লাপেতেগুইয়ের শিষ্যরা। এ নিয়ে প্রথমবারের মত নিজেদের ভিতরে অনুষ্ঠিত পর পর দু’ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদকে পরাজিত করলো সেভিয়া।  খেলার প্রথমার্ধে স্বাগতিক সেভিয়ার কাছে পাত্তাই পায়নি রিয়াল মাদ্রিদ। দুর্দান্ত ফুটবল খেলে ম্যাচের ১৭’ ও ২১’ মিনিটে ২ গোল করে সেভিয়ার খেলোয়াড়েরা। দলের পক্ষে দুইটি গোলই করেন সেভিয়ার পর্তুগীজ স্ট্রাইকার আন্দ্রে সিলভা। এরপর ৩৯’ মিনিটে ফ্রাংকো ভাসকেজের দুর্দান্ত পাসে রিয়ালের জাল আবার বল জড়ান দারুণ ফর্মে থাকা ফ্রেঞ্চ স্ট্রাইকার উইসাম বেন। প্রথমার্ধেই ৩ গোলে পিছিয়ে যাওয়া রিয়াল মাদ্রিদ দ্বিতীয়ার্ধে গোলের চেষ্টা করলেও কোন গোলের দেখা তারা পাননি। ফলে তিন গোলের লজ্জা নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নদের। 

দিনের অন্য খেলায় অ্যাথলেটিকো বিলবাওয়ের বিপক্ষে ৩-০ গোলে জয় পেয়েছে ভিলারিয়াল এবং ১-১ গোলে সেল্টা ভিগোর সাথে ড্র করেছে ভ্যালেন্সিয়া।