• শুক্রবার, অক্টোবর ১৯, ২০১৮
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:২৩ রাত

বীরত্বের জন্য পুরস্কৃত তামিম

  • প্রকাশিত ০৫:১৭ সন্ধ্যা অক্টোবর ৬, ২০১৮
তামি ইকবাল।
বাংলাদেশের ওপেনার তামিম ইকবালকে পুরস্কৃত করেছে অ্যাম্বার গ্রুপ। ছবি: ঢাকা ট্রিবিউন (ফাইল ছবি)।

এবারের সংস্করণে টাইগারদের পথচলাটা মসৃণ না হলেও তা ছিল চমকপ্রদ ঘটনাবলীর এক অবিশ্বাস্য সমন্বয়। যার শুরু ছিল টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে দলের বিপর্যয়ে তামিমের ভাঙা হাতে ব্যাট করতে নামার মধ্য দিয়ে

সদ্যসমাপ্ত এশিয়া কাপে ভাঙা হাতে ব্যাট করতে নামার সাহসী ও নিঃস্বার্থ সিদ্ধান্তের জন্য বাংলাদেশের ওপেনার তামিম ইকবালকে পুরস্কৃত করেছে অ্যাম্বার গ্রুপ। টাইগাররা এই টুর্নামেন্টের শেষ চার আসরের মধ্যে এইবার নিয়ে তিনবার ফাইনালে উঠলেও এবারও রানার্স আপ হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় তাদের। তবে এবারের সংস্করণে টাইগারদের পথচলাটা মসৃণ না হলেও তা ছিল চমকপ্রদ ঘটনাবলীর এক অবিশ্বাস্য সমন্বয়। যার শুরু ছিল টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে দলের বিপর্যয়ে তামিমের ভাঙা হাতে ব্যাট করতে নামার মধ্য দিয়ে।

ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করতে নামা বাংলাদেশের স্কোর তখন ৯ উইকেটে ২২৯, বল তখনও ১৯ টি বাকি। শ্রীলঙ্কার খেলোয়াড়েরা যখন ভাবতে শুরু করেছেন বাংলাদেশের ইনিংস শেষ তখনই ম্যাচের ২য় ওভারে কব্জির চোটে মাঠ থেকে বেরিয়ে যাওয়া সিংহ-হৃদয় তামিমের আবির্ভাব। তিনি আসলেন। এক হাতেই মোকাবেলা করলেন লাকমালের বাউন্সারটি নিখুঁত একটি ডিফেন্সিভ শটে। ব্যস ঐ একটি ডিফেন্সিভ শটেই তিনি বাংলাদেশকে জয়ের নেশায় উজ্জীবিত করে তোলেন একটি অবিশ্বাস্য ইতিহাস রচনার মাধ্যমে। উজ্জীবিত মুশফিকও প্রতিদান দেন বন্ধুর এই অসম সাহসী পদক্ষেপের। শেষ ১৬ বলে বাঘের ক্ষিপ্রতায় তুলে নেন মহামূল্যবান ৩২টি রান। ক্যারিয়ারের সেরা ইনিংসটি খেলে আউট হবার আগে মাত্র ১৫০ বলে ১৪৪ রানের একটি ক্ল্যাসিক রচনা করেছিলেন তিনি। 


তামিমের বীরত্ব নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ার প্রশংসার ঝড় উঠে। খেলোয়াড় থেকে ভক্ত সবাই তামিম বন্দনায় মুখর হয়ে উঠেছিলেন সেই সময়। এরই ধারাবাহিকতায় তামিমের বীরত্বের স্বীকৃতিস্বরূপ তাকে ১০ লক্ষ টাকা দিয়ে পুরস্কৃত করেছে অ্যাম্বার গ্রুপ। গত বৃহস্পতিবার প্রতিষ্ঠানটির কার্যালয় ভ্রমণ করেন তামিম। 

প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক শওকত আজিজ রাসেল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লিখেছেন, "অসাধারণ একজন ব্যাটসম্যানকে এই উপহার দিতে পেরে আমরা গর্বিত। তিনি একজন নিঃস্বার্থ খেলোয়াড়, যিনি ভাঙা হাতে ব্যাট করতে নেমে সারাবিশ্বের মন জয় করে নিয়েছেন। আমরা আপনাকে নিয়ে গর্বিত তামিম। আপনি একজন সত্যিই একজন টাইগার এবং সকল ক্রিকেটারদের অনুপ্রেরণার উৎস"।


তামিমও পরবর্তীতে তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেশের শীর্ষ এই ব্যবসা প্রতিষ্ঠানটিকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

তামিম লিখেছেন, "আপনি আপনার প্রচেষ্টার জন্য যখন স্বীকৃতি পাবেন, তখন একটি বিশেষ ধরণের ভাললাগা তৈরী হয়। দলের প্রয়োজনেই আমি এটা করেছি। আমার দলের খেলোয়াড়েরা এবং অধিনায়ক মাশরাফি ভাইয়ের অনুপ্রেরণায় আমি এমন একটা কাজ করতে পেরেছি। তখন ভাবিনি আমার এই পদক্ষেপ সারাবিশ্বে এতটা সমাদৃত হবে। আমি এই ভালবাসার জন্য কৃতজ্ঞতা জানাই। অ্যাম্বার গ্রুপ থেকে আমাকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল এবং আমার কাজের স্বীকৃতিস্বরুপ আমাকে তাদের পক্ষ থেকে পুরস্কৃত করা হয়েছে। আমি দ্রুত সেরে উঠছি। আমার জন্য দোয়া করবেন। আশা করছি বাংলয়াদেশের হয়ে খুব দ্রুতই আবার মাঠে ফিরতে পারব"।