• বুধবার, আগস্ট ২১, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৩ রাত

টানা দ্বিতীয়বারের মতো ম্যানসিটি নাকি ২৮ বছর পর লিভারপুল!

  • প্রকাশিত ০৩:৩৩ বিকেল মে ১২, ২০১৯
ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগ
ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগ

এ মৌসুমের স্নায়ুক্ষয়ী শ্বাসরুদ্ধকর আসরটি ইতোমধ্যেই পৌঁছেছে নাটকীয়তার চূড়ান্ত সীমায়

সারাবিশ্বের ফুটবল প্রেমীদের কাছে একবাক্যে সবথেকে আকর্ষণীয় ও প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ আসর ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগ। আর এ মৌসুমের স্নায়ুক্ষয়ী শ্বাসরুদ্ধকর আসরটি ইতোমধ্যেই পৌঁছেছে নাটকীয়তার চূড়ান্ত সীমায়। আজই জানা যাবে, ম্যানচেস্টার সিটি নাকি লিভারপুল, কে হতে যাচ্ছে ২০১৮-২০১৯ মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে শেষবার এমন জমজমাট লড়াই হয়েছিল ২০১১-২০১২ মৌসুমে। সেবারও ম্যানচেস্টার সিটি সমান পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে কিংবদন্তি কোচ স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসনের ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। সেবার লিগের শেষ ম্যাচের শেষ মুহুর্ত পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়েছিল শিরোপা নির্ধারণের জন্য।

আট বছর পর আবারো একই মুহুর্তের আবির্ভাব ঘটেছে। পেপ গার্দিওয়ালার অপ্রতিরোধ্য ম্যানচেস্টার সিটি আর জার্গেন ক্লপের উদ্দীপ্ত লিভারপুলের মধ্যে। সিটিজেনরা আছে লিগ টেবিলে সবার শীর্ষে। তবে পিছিয়ে নেই লিভারপুলও। দুদলের মধ্যে পয়েন্টের ব্যবধান ১ আর গোল ব্যবধান ৪।

দু’দলই নিজেদের শেষ ম্যাচে রাত আটটায় মাঠে নামবে। লিভারপুল ঘরের মাঠে আতিথ্য দেবে উলভারহ্যাম্পটনকে। অন্যদিকে সিটিজেনরা খেলবে ব্রাইটনের মাঠে।

উভয় দল শেষ ম্যাচ জিতলেও সিটিজেনরাই হবে লিগ চ্যাম্পিয়ন। তবে ইংলিশ লিগের ইতিহাসে এখন পর্যন্ত কোন দলই ৯৭ পয়েন্ট অর্জন করে শিরোপা বঞ্চিত হয়নি।

২০১১-১২ মৌসুমে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড সার্জিও আগুয়েরোর শেষ মিনিটের গোলে কুইন্স পার্ক রেঞ্জার্সকে হারিয়ে ৪৪ বছর পর লিগ শিরোপা জিতেছিল ম্যানচেস্টার সিটি।

তবে কি খালি হাতেই থাকতে হবে অল রেডদের? হাল ছাড়ছেন না মার্সিসাইডের দলটি। শিরোপার এত কাছে এসেও যদি বঞ্চিত থাকতে হয় তাহলে তারা কেবল ভাগ্যকেই দুষতে পারেন। লিগে লিভারপুলের বাকি এক ম্যাচ জিতলে লিভারপুলের পয়েন্ট দাঁড়াবে ৯৭। যা লিভারপুলের ইতিহাসে অর্জন করতে পারেননি কোন কোচই।

শিরোপা জয়ের উল্লাসে অলরেড কিংবা সিটিজেনর যারাই মাতুক না কেন। এক রূপকথার মতো ফুটবল মৌসুম উপভোগ করেছে ফুটবলপ্রেমীরা। দুই স্টেডিয়ামে প্রস্তুত দুইটি শিরোপা। তবে গলায় মালা উঠবে কেবল একজনেরই। অপেক্ষা তাই রাত আটটার।