• বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৪, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৪:১৩ বিকেল

৫০ ওভারে ভারতের সংগ্রহ ৯ উইকেটে ৩১৪

  • প্রকাশিত ০৭:১৮ রাত জুলাই ২, ২০১৯
বাংলাদেশ
ভারতীয় ওপেনার লোকেশ রাহুলকে ফিরিয়ে দিয়ে রুবেলের উদযাপন। ছবি: ইংল্যান্ড থেকে মো. মানিক

ম্যাচের শুরুতে পঞ্চম ওভারে ক্যাচ তুলে দিয়েছিলেন রোহিত শর্মা। কিন্তু তামিম ইকবাল রোহিত শর্মার সহজ ক্যাচটি রাখতে পারেননি। এরপরই জ্বলে ওঠেন শর্মা। তাকে সঙ্গ দেন অপর ওপেনার লোকেশ রাহুল। উভয়ের তাণ্ডবে ধুঁকছিল বাংলাদেশ।

টসে জিতে বাংলাদেশের বিপক্ষে ব্যাটিংয়ে নামা ভারতের স্কোর ৫০ ওভার শেষে ৯ উইকেটে ৩১৪।

ম্যাচের শুরুতে পঞ্চম ওভারে ক্যাচ তুলে দিয়েছিলেন রোহিত শর্মা। কিন্তু তামিম ইকবাল রোহিত শর্মার সহজ ক্যাচটি রাখতে পারেননি। এরপরই জ্বলে ওঠেন শর্মা। তাকে সঙ্গ দেন অপর ওপেনার লোকেশ রাহুল। উভয়ের তাণ্ডবে ধুঁকছিল বাংলাদেশ।

তবে সৌম্য সরকারের বলে লিটন দাসের হাতে ধরা পড়েন শর্মা। কিন্তু ততক্ষণে৯২ বল খেলে রোহিতের ব্যক্তিগত সংগ্রহ ছিল ১০৪। ভারতের দলীয় রান তখন ১৮০। প্রথম উইকেট পতনের পর থেকে ভারতের রাশ টেনে ধরার চেষ্টা কিছুটা কাজে এসেছে বাংলাদেশের, কিছুটা পথ হারায় ভারত।

রোহিত শর্মাকে আউট করার পরপরই ব্যাটসম্যান লোকেশ রাহুলকে ৭৭ রানে ফিরিয়েছেন টাইগাররা। রুবেল হোসেনের বল ভারতীয় এই ব্যাটসম্যানের ব্যাট ছুঁয়ে গেলে ঝাঁপিয়ে গ্লাভসবন্দী করেন উইকেটরক্ষক মুশফিকুর রহিম।

ইনিংসের ৩৯তম ওভারে বিরাট কোহলি ও হার্দিক পান্ডিয়াকে সাজঘরে ফিরিয়ে দেন কাটার মাস্টার মুস্তাফিজ। ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে কোহলি ধরা পড়েন বাউন্ডারি লাইনে দাঁড়ানো রুবেল হোসেনের হাতে। এ সময় কোহলির ব্যক্তিগত সংগ্রহ ছিল ২৭ বলে ২৬ রান।

একবল ডট দিয়ে পরের বলেই স্লিপে হার্দিক পান্ডিয়ার ক্যাচ সৌম্য সরকার। তবে ২ বল খেলে কোনো রান করতে পারেননি পান্ডিয়া।

এরপর ইনিংস টেনে নিতে থাকেন রিশব পান্ত ও মহেন্দ্র সিং ধোনি। দলীয় ৪৫তম ওভারের প্রথম বলে সাকিব ফিরিয়ে দেন রিশবকে। ৪১ বলে ৪৮ রান করে মোসাদ্দেকের তালুবন্দি হন রিশব পান্ত। সাকিব নিজের শেষ ওভারে গিয়ে পান প্রথম উইকেট।

ইনিংসের ৪৮তম ওভারে মোস্তাফিজের বলে ব্যক্তিগত ৮ রানে দীনেশ কার্তিক ক্যাচ তুলে দেন মোসাদ্দেকের হাতে। ভারতের দলীয় সংগ্রহ তখন ২৯৮। শেষ ওভারে তিন উইকেট তুলে নেন মুস্তাফিজ। ৩৩ বলে ৩৪ রান করে সাকিবের হাতে ধরা পড়েন মহেন্দ্র সিং ধোনি। এরপরই রানআউটি হয়ে সাজঘরে ফিরে যান ভুবনেশ্বর কুমার। শেষ বলে মোস্তাফিজ বোল্ড করেন বুমরাহকে।