• বুধবার, নভেম্বর ২০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৪:৪৩ বিকেল

'নিউজিল্যান্ডার অব দ্য ইয়ার' পুরস্কারের জন্য মনোনীত ইংল্যান্ডের স্টোকস

  • প্রকাশিত ০৪:১৪ বিকেল জুলাই ১৯, ২০১৯
বেন স্টোকস
বেন স্টোকস। এএফপি

স্টোকস ছাড়াও এই পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন

লর্ডসের শাসরুদ্ধকর ফাইনালে ইংলিশ অলরাউন্ডার বেন স্টোকসের অসাধারণ নৈপূণ্যে হৃদয় ভেঙেছে নিউজিল্যান্ড সমর্থকদের। তবে, সেই স্টোকসকেই 'নিউজিল্যান্ডার অব দ্য ইয়ার' পুরস্কারের জন্য মনোনীত করেছে দেশটির সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। বিবিসি'র একটি প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

যার কারণে কিউইদের স্বপ্নভঙ্গ, সেই স্টোকসকে এই সম্মানসূচক পুরস্কারের জন্য মনোনীত করার ব্যাপারে পুরস্কার প্রদান কমিটির প্রধান ক্যামেরন বেনেট বলেন, "বিশ্বকাপে সে আমাদের হয়ে না খেললেও তার জন্ম ক্রাইস্টচার্চে। এমনকি তার পূর্বপুরুষরাও মাউরি সপ্রদায়ের অন্তর্গত ছিলেন। তাই আমরা তাকে নিউজিল্যান্ডার হিসেবে দাবি করতেই পারি।"      

বিবিসি'র ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রতিবছর নিজ ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য নিউজিল্যান্ডের নাগরিকদের এই বিশেষ পুরস্কার দিয়ে থাকে দেশটির সরকার। এ বছর স্টোকস ছাড়াও এই পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন।

প্রসঙ্গত, ইংল্যান্ডের হয়ে খেললেও স্টোকসের জন্ম নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে। সেখানেই শৈশব কেটেছে ইংলিশদের বিশ্বজয়ের এই নায়কের। এমনকি তার বাবা জেরার্ড স্টোকস নিউজিল্যান্ডের হয়ে রাগবি লিগে দীর্ঘদিন খেলেছেন। কিন্তু ১২ বছর বয়সে ইংল্যান্ডে কোচিংয়ের উদ্দেশে সপরিবারে পাড়ি জমান তিনি। পরবর্তীতে তার বাবা-মা ক্রাইস্টচার্চে ফেরত আসলেও ইংল্যান্ডে স্থায়ীভাবে থেকে যান স্টোকস। পেয়ে যান ইংল্যান্ডের নাগরিকত্ব। পরবর্তীতে ইংল্যান্ডের জাতীয় ক্রিকেট দলে সুযোগ পান তিনি।