• সোমবার, এপ্রিল ০৬, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৬:২০ সন্ধ্যা

ভুয়া পাসপোর্টে প্যারাগুয়েতে গিয়ে ধরা পড়লেন রোনালদিনহো

  • প্রকাশিত ১১:৩৪ সকাল মার্চ ৫, ২০২০
রোনালদিনহো
ভুয়া পাসপোর্টে প্যারাগুয়েতে ঢুকে ধরা পড়েছেন ফুটবলের মহাতারকা রোনালদিনহো। ইএসপিএন

প্যারাগুয়ের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, ‘রোনালদিনহো ও তার ভাইয়ের বিরুদ্ধে অনুসন্ধানের পর তাদের কথা বলার সুযোগ দেওয়া হবে। আর তারপরই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে তাদের গ্রেপ্তার করা হবে কিনা’

মাঠের ফুটবলকে বিদায় জানিয়েছেন বেশ সময় পেরিয়েছে, তবে বিতর্কের অবসান ঘটেনি এখনো। সর্বশেষ, ভুয়া পাসপোর্ট নিয়ে প্রবেশ করে প্যারাগুয়ে পুলিশের কাছে আটক হয়েছেন ব্রাজিলিয়ান মহাতারকা রোনালদিনহো। বুধবার (৪ মার্চ) প্যারাগুয়ের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ইউক্লাইদস আকোভেদো ইএসপিএন’কে এখবর নিশ্চিত করেছেন। 

প্যারাগুয়ের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, তাদের পুলিশ বিভাগের সহয়তায় বুধবার রাতে রোনালদিনহো ও তার ভাইয়ের হোটেল রুমে তল্লাশি চালানো হয়। দেশটি প্রবেশের সময় তারা যে কাগজপত্র দেখিয়েছে, সেগুলো দেখে সন্দেহ হয়েছিল দেশটির অভিবাসন ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের।

তবে এখনই তাদের গ্রেপ্তার করা হচ্ছে না বলেও জানিয়েছে প্যারাগুয়ের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এর কারণ হলো রোনালদিনহো ও তার ভাই দুইজনই পুলিশকে তথ্য দিয়ে সহায়তা করছেন। বুধবার রাত থেকে বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত তারা পুলিশি প্রহরায় তাদের হোটেল কক্ষেই থাকবেন। বৃহস্পতিবার সকালে তাদের প্যারাগুয়ের অ্যাটর্নি জেনারেলের অফিসে নিয়ে যাওয়া হবে।

দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ইউক্লাইদস অ্যাকেভেদো জানান, “রোনালদিনহো ও তার ভাইয়ের বিরুদ্ধে এখনো অনুসন্ধান চলছে। এরপর তাদের নিজেদের কথা বলার সুযোগ দেওয়া হবে। আর তারপরেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে যে তাদের গ্রেপ্তার করা হবে নাকি হবে না।”

এর আগে ২০১৮ সালে, রোনালদিনহোর ব্রাজিলের পাসপোর্ট জব্দ করেছিলো ব্রাজিল সরকার। নিজ দেশের লেক “গুয়াইবা”তে সরকারি অনুমতি ব্যতীত একটি চিনির কল বানানোয় তাকে ২৩ লাখ ডলার জরিমানা করা হয়েছিল এবং সেইসঙ্গে তার পাসপোর্টও জব্দ করা হয়েছিল। 

আর মানা দেওয়ার সময় দেখা গেছে, তার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে মাত্র ৬ ডলার ৫৯ সেন্ট আছে! তাই জরিমানা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় শেষ পর্যন্ত রোনালদিনহোর পাসপোর্ট আর ফেরত দেওয়া হয়নি।