• মঙ্গলবার, নভেম্বর ১৯, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০২:৩১ দুপুর

গোপনে ছবি পাঠাচ্ছে স্যামসাং স্মার্টফোন

  • প্রকাশিত ০৫:২৮ সন্ধ্যা জুলাই ১৭, ২০১৮
jbareham-160815-1180-a-0014-0-0-1531826833573.jpg
গোপনে ছবি পাঠাচ্ছে স্যামসাং স্মার্টফোন। ছবি: রয়টার্স

ইতোমধ্যেই রেডিট ও স্যামসাং ফোরামে অভিযোগ জানিয়েছেন অসংখ্য স্যামসাং স্মার্টফোন ব্যবহারকারী।

ব্যবহারকারীর অনুমতি ছাড়াই ফোনের স্টোরেজ থেকে ডিফল্ট টেক্সটিং অ্যাপের মাধ্যমে ছবি পাঠানো শুরু করেছে স্যামস্যাং স্মার্টফোন। নতুন এই বাগটি বর্তমানে স্যামসাং স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের জন্য চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

প্রযুক্তিভিত্তিক অনলাইন সাইট গিজমোডো এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, স্মার্টফোনের এ সমস্যাটি নিয়ে ইতোমধ্যেই রেডিট ও স্যামসাং ফোরামে অভিযোগ জানিয়েছেন অসংখ্য স্যামসাং স্মার্টফোন ব্যবহারকারী।

অভিযোগকারীদের মধ্যে গ্যালাক্সি নোট ৮ এবং গ্যালাক্সি এস৯ মডেলের ব্যবহারকারীরাও রয়েছেন, বলে জানিয়েছে গিজমোডো। সমস্যার শিকার ব্যবহারকারীদের ভাষ্য অনুযায়ী, গ্যালাক্সি ডিভাইসের ডিফল্ট টেক্সটিং অ্যাপ ‘স্যামসাং মেসেজ’ থেকেই শুরু হয়েছে এই বাগ সমস্যা। হঠাৎ করেই স্টোরেজ থেকে ছবি নিয়ে মেসেজের মাধ্যমে কনট্যাক্ট লিস্টের নাম্বারে পাঠিয়ে দেওয়া শুরু করেছে স্মার্টফোন। এদিকে, রেডিটে একজন দাবি করেছেন, শুধু একটি ছবি নয়, মধ্যরাতে অনুমতি ছাড়াই কনট্যাক্ট লিস্টের এক নাম্বারে তার সম্পূর্ণ ফটো গ্যালারিই পাঠিয়ে দিয়েছে স্মার্টফোন!

তবে, বাগটির সবচেয়ে ভয়াবহ ব্যাপার হচ্ছে, স্যামসাং মেসেজের ওই বাগ অন্যকে ছবি পাঠালেও, এ বিষয়ে কোনো প্রমাণ রাখে না ফোনে। অর্থ্যাৎ, যাকে ছবি পাঠানো হয়েছে, তিনি ব্যবহারকারীকে না জানালে, এ বিষয়ে জানার কোনো উপায় নেই।

এ প্রসঙ্গে স্যামসাং এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, “আমরা সমস্যাটি সম্পর্কে অবহিত। আমাদের কারিগরি দল বর্তমানে সমস্যাটি সমাধানের জন্য কাজ করছে।” 

সমস্যা সমাধান না হওয়া পর্যন্ত এখন স্যামসাং ব্যবহারকারীরা দুটি উপায়ে এই বাগ সমস্যার হাত থেকে রেহাই পেতে পারেন। প্রথম উপায়টি হচ্ছে, স্যামসাং মেসেজ যাতে স্টোরেজে প্রবেশাধিকার না পায় সে বিষয়টি নিশ্চিত করা, ফোনের অ্যাপ সেটিংস থেকেই এটি করা সম্ভব।

দ্বিতীয় উপায়টি হচ্ছে, মেসেজের জন্য ডিফল্ট টেক্সটিং অ্যাপের পরিবর্তে ‘অ্যান্ড্রয়েড মেসেজেসর টেক্সট্রা’-এর মতো টেক্সটিং অ্যাপ ব্যবহার করা। এতে করে, কোনো ফিক্স ইস্যু না করা পর্যন্ত নিশ্চিন্তে থাকতে পারবেন স্যামসাং স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা।