• সোমবার, আগস্ট ২৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:৪৩ সকাল

সাইবার হামলার শিকার ১৫ লাখ রোগী

  • প্রকাশিত ১০:৪৭ রাত জুলাই ২০, ২০১৮
t071059z-1482144777-rc1ac858a1e0-rtrmadp-3-cyber-attack-940x580-1532105166534.jpg
সাইবার হামলার শিকার হয়েছে সিঙ্গাপুর। ছবি: রয়টার্স

ইতিহাসে প্রথমবারের মতো এত বড় মাপের সাইবার হামলার শিকার হল সিঙ্গাপুর।

হ্যাকাররা সাইবার হামলা চালিয়ে সিঙ্গাপুরের এক চতুর্থাংশ নাগরিকের ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করেছে। শুক্রবার দেশটির সরকার সাইবার হামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। এই সাইবার হামলায় হ্যাকাররা দেশটির ১৫ লাখ নাগরিকের তথ্য হাতিয়ে নিয়েছে, বাদ পড়েনি দেশটির প্রধানমন্ত্রী লি সুয়েন লুংয়ের তথ্যও।

সংবাদমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ইতিহাসে প্রথমবারের মতো এত বড় মাপের সাইবার হামলার শিকার হয়েছে সিঙ্গাপুর। 

সিঙ্গাপুরের রোগীদের চিকিৎসা বিবরনী সংরিক্ষত ডেটাবেস থেকে ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নেওয়াটাই ছিল হ্যাকারদের মূল উদ্দেশ্য। সাইবার হামলাটি প্রসঙ্গে সিঙ্গাপুরের স্বাস্থ্যমন্ত্রী কিম ইয়ং বলেছেন, “হামলাকারীরা প্রধানমন্ত্রী লি সেইন লুংয়ের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত তথ্য পেতে তার চিকিৎসা সংক্রান্ত রেকর্ডে প্রবেশের চেষ্টা করেছে বারবার। প্রধানমন্ত্রী লুং ক্যান্সারে আক্রান্ত।” 

এই সাইবার হামলায় ২০১৫ সালে পয়লা মে থেকে ২০১৮ সালের ৪ জুলাই পর্যন্ত চিকিৎসা নিতে হাসপাতালে যাওয়া রোগীদের তথ্য হাতিয়ে নিয়েছে হ্যাকাররা। মূলত রোগীদের নাম ও ঠিকানাই চুরি হয়েছে। কোনও কোনও ক্ষেত্রে তাদেরকে ওষুধের তথ্যও খোয়া গেছে। সরকারের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, রোগীরা কোন রোগের চিকিৎসা নিচ্ছেন সে সংক্রান্ত কোনও তথ্য ফাঁস হয়নি এবং হ্যাকাররা ডাটাবেসের কোনও তথ্য মুছে দেয়নি।

বিবিসি আরও জানিয়েছে, সিঙ্গাপুরের সরকারি স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানগুলোর একটি সিংহেলথের কম্পিউটার ভাইরাস আক্রান্ত হয়েছিল। সেখান থেকেই হ্যাকাররা ডাটাবেসে প্রবেশাধিকার পায়। গত ২৭ জুন থেকে ৪ জুলাইয়ের মধ্যে কোনও এক সময় হ্যাকিংয়ের ঘটনাটি ঘটেছে বলে ধারণা করছেন সংশ্লিষ্টরা। তবে ‘তদন্তের স্বার্থে’ হ্যাকারদের পরিচয় প্রকাশে অস্বীকৃতি জানিয়েছে দেশটির সরকার।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালেও হ্যাকাররা সিঙ্গাপুরের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের ডাটাবেস হ্যাক করেছিল। ওই হামলায় দেশটির সেনাবাহিনীর ৮৫০ জন সদস্য ও মন্ত্রণালয় কর্মকর্তাদের তথ্য হাতিয়ে নেওয়া হয়েছিল।