• মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ১১, ২০১৮
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫৪ রাত

সরকার কর্তৃক ৬২৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ইন্টারনেট সেবা

  • প্রকাশিত ০১:২৫ দুপুর আগস্ট ৭, ২০১৮
An internet cable in a server room
কোমল পানীয়ের চেয়েও ইন্টারনেটের দাম কম ভারতে। ছবি: সৌজন্যে

৬২৬ সরকারি কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে নিরবিচ্ছিন্ন ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সংযোগ দেওয়া হবে।

সরকারের 'ডিজিটাল বাংলাদেশ' উদ্যোগের অংশ হিসাবে সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে উচ্চ গতির ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সংযোগ প্রদানের পরিকল্পনা চলছে। এমনটাই জানিয়েছেন, টেলিকম ও আইসিটি মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার। 

ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সূত্র জানায়, আগামী বছরের মধ্যে ৪৪.৯৮ কোটি টাকার প্রকল্প সম্পন্ন হবে বলে আশা করা হচ্ছে। 

তারা জানিয়েছে যে, ৬২৬ সরকারি কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে  নিরবিচ্ছিন্ন ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সংযোগ দেওয়া হবে। 

ইন্টারনেট সংযোগের জন্য, ১,০৪১ কিলোমিটারের ফাইবার অপটিক তারের স্থাপন করতে হবে। 

সরকারি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ইন্টারনেট সংযোগের ফলে প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে বৈশ্বিক প্রবণতার সাথে সংযোগ করতে সাহায্য করবে।  

২০১৮ সালের মার্চে থেকে ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারি মধ্যে ৪৩৭টি প্রতিষ্ঠানকে ব্রডব্যান্ড সংযোগ প্রদানের জন্য প্রথমবারের মতো ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগে ২৪.৯ কোটি টাকার বাজেট দেওয়া হয়েছে। 

এই এপ্রিলে প্রকল্পটি পরিবর্তিত হয়ে ৬২৬টি প্রতিষ্ঠানের জন্য এটি অনুমোদন করা হয়েছে যাতে ব্যয় হবে ৪৪৯.৮৮কোটি টাকা। প্রকল্পটির মেয়াদ জুলাই ২০১৮ সাল থেকে ডিসেম্বর ২০১৯ সাল পর্যন্ত করা হয়েছে। 

টেলিকম ও আইসিটি মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার বলেন, তিনি এই বছরের সেপ্টেম্বরের মধ্যে কাজের অগ্রগতি দেখানোর জন্য বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ কোম্পানি লিমিটেডকে নির্দেশ দিয়েছেন।

তিনি বলেন, 'ডিজিটাল বাংলাদেশ' অর্জনের জন্য প্রকল্প খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তিনি আরও বলেন, "ইন্টারনেট আমাদের শিক্ষার্থীদের বিশ্বব্যাপী শিক্ষার সাথে তাল মিলিয়ে চলতে সক্ষম হবে এবং তারা প্রগতিশীল হবে, পিছিয়ে পড়বে না”। 

মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে যে, প্রজেক্ট ডিরেক্টর নিয়োগ করা হলে কাজের অগ্রগতির গতি হবে। আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই নিয়োগ করা হবে। 

তাছাড়া সরকার ইতোমধ্যে সমস্ত জেলা শহর, উপজেলা শহর ও ইউনিয়ন পরিষদ জুড়ে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সংযোগ স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।