• বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৫, ২০১৮
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৯ সকাল

পাসকোড না দিলে ১০ বছর হাজতবাস!

  • প্রকাশিত ১১:০৪ রাত আগস্ট ২০, ২০১৮
পাসকোড
আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী চাওয়া মাত্র ব্যক্তিগত ডিভাইসের পাসকোড দিয়ে দিতে হবে। ছবি: সংগৃহীত

আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী চাওয়া মাত্র ব্যক্তিগত ডিভাইসের পাসকোড দিয়ে দিতে হবে।

সম্প্রতি প্রস্তাবিত নতুন এক বিল অস্ট্রেলিয়ার প্রযুক্তিপণ্য ব্যবহারকারী ও নিরাপত্তা রক্ষকদের মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ নতুন ওই বিলটি পাশ হয়ে গেলে, আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী চাওয়া মাত্র ব্যক্তিগত ডিভাইসের পাসকোড দিয়ে দিতে হবে। দিতে রাজি না হলেও সমস্যা নেই, দশ বছর হাজতবাস করলেই চলবে!

প্রযুক্তিবিষয়ক সংবাদদাতা আরটি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ইতোমধ্যে অস্ট্রেলিয়ায় এরকম একটি আইন রয়েছে। তবে বিদ্যমান আইনে, গুরুত্বপূর্ণ কোনও অপরাধের আসামী হলে এবং ব্যক্তিগত ডিভাইসে প্রবেশাধিকার দিতে না চাইলে দুই বছরের বেশি কারাদণ্ড হতে পারে। 

কিন্তু, দেশটির নতুন অ্যাস্টিস্টেন্স অ্যান্ড অ্যাকসেস বিল অনুযায়ী, ব্যক্তিগত ডিভাইসে প্রবেশাধিকার দিতে না চাইলেই শাস্তিস্বরূপ ১০ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হবে।

নতুন ওই বিলটির শুরুর অংশেই বলা হয়েছে, “এনক্রিপশন অথবা এ ধরনের অন্যান্য ইলেকট্রনিক নিরাপত্তা শুধু সন্ত্রাসী, শিশু নিপীড়ক, অপরাধী সংস্থা ব্যবহার করে থাকে নিজেদের অপরাধ ঢাকবার স্বার্থে।”

প্রস্তাবনাটিকে আরও গুরত্বপূর্ণ করে তুলতে এক শিশু নিপীড়ক ধর্ষকের উদাহরণ টেনেছে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। মাদকের বিনিময়ে অল্পবয়সী কিশোরদের ফোনের মাধ্যমে যৌন সম্পর্কের প্রস্তাব পাঠাত ওই নিপীড়ক। দেশটির মন্ত্রণালয় বিষয়টিকে উদাহরণ হিসেবে টেনে জানিয়েছে, ওই ব্যক্তির ফোনে পাসকোড দেওয়া ছিল, তাই তার অপরাধের বিষয়টি যেভাবে তদন্তের আওতায় আনা উচিত ছিল, সেটি সম্ভব হয়নি।

বিষয়টি নিয়ে এখন বেশ সমালোচনা চলছে, পক্ষে-বিপক্ষে দুই দিকের পাল্লাই বেশ ভারী। তবে, অস্ট্রেলিয়ায় এ ধরনের আইন হয়ে গেলে, সেটি যে অন্যান্য দেশের জন্যও এরকম আইন প্রণয়নের পথ খুলে দেবে তা বলা বাহুল্য।