• সোমবার, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০১:১৪ দুপুর

মোস্তফা জব্বার: আগামী দু’মাসের মধ্যে দেশে মাদারবোর্ড তৈরি হবে

  • প্রকাশিত ০৬:২৫ সন্ধ্যা জানুয়ারী ১৩, ২০১৯
রাজধানী ব্রাক ইন মিলনায়তনে শনিবার এক  আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। ছবি: মাহমুদ হোসাইন অপু/ঢাকা ট্রিবিউন
রাজধানী ব্রাক ইন মিলনায়তনে শনিবার এক আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। ছবি: মাহমুদ হোসাইন অপু/ঢাকা ট্রিবিউন

'বাংলাদেশ চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের নেতৃত্বের জন্য প্রস্তুত'

আগামী দু’মাসের মধ্যে দেশে মাদারবোর্ড তৈরি হবে বলে জানিয়েছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। শনিবার (১২ জানুয়ারি) রাজধানী ব্রাক ইন মিলনায়তনে ‘চতুর্থ শিল্প বিপ্লব- আমরা কি প্রস্তুত?’ শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনা সভায় ডিজিটাল ডিভাইস উৎপাদনে বাংলাদেশের সফলতার কথা তুলে ধরার সময় তিনি এ কথা জানান।

তিনি বলেন,  "গত চার মাসে দেশে ৬টি কারখানা উদ্বোধন করা হয়েছে। আগামী দু’মাসের মধ্যে দেশে মাদারবোর্ড তৈরি হবে। এসবের ধারাবাহিকতায় ডিজিটাল ডিভাইসের বাজারও বাংলাদেশের দখলে থাকবে"।

শিল্প বিপ্লব সম্পর্কে মোস্তফা জব্বার বলেন, "দেশের ৬৫ ভাগ তরুণ জনগোষ্ঠীকে প্রযুক্তি উপযোগী করে গড়ে তোলার মাধ্যমে বাংলাদেশ চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের নেতৃত্বের জন্য প্রস্তুত।প্রযুক্তি চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের ভিত্তি হিসেবে কাজ করবে। আমাদের বড় সম্পদ হচ্ছে মেধা। আগামী ৫ বছরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টিসম্পন্ন গতিশীল নেতৃত্বে বাংলাদেশ এমন এক অবস্থানে উপনীত হবে যা পৃথিবী অবাক বিস্ময়ে দেখবে।"

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোস্তফা জব্বার আরও বলেন, "প্রথম, দ্বিতীয় এবং তৃতীয় শিল্প বিপ্লব মিস করলেও বাংলাদেশে চতুর্থ শিল্প বিপ্লব ভালভাবে শুরু হয়েছে"।

"শিক্ষার ডিজিটাল রূপান্তরের লক্ষ্যে প্রাথমিক স্তর থেকে প্রযুক্তি শিক্ষা বাস্তবায়নের বিকল্প নেই। প্রাথমিক স্তর থেকে তথ্যপ্রযুক্তি বাধ্যবাধকতার জায়গায় যেতে চাই," যোগ করেন তিনি।

তিনি উল্লেখ করেন, ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ৪০ লাখ থেকে সাড়ে আট কোটিতে উন্নীত হয়েছে। পৃথিবীর কোন দেশে ডিজিটাল ইউনিয়ন সেন্টার বাংলাদেশের আগে তৈরি হয়নি।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী আরও বলেন, ইতোমধ্যে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের বিদ্যমান চ্যালেঞ্জ  মোকাবেলায় যুগান্তকারী বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ ও বাস্তবায়ন শুরু হয়েছে। এ খাতে বিদ্যমান চ্যালেঞ্জ সমূহের মধ্যে শিক্ষাব্যবস্থা, সাইবার নিরাপত্তা এবং কাগজবিহীন ব্যবস্থা বলে উল্লেখ করেন তিনি।

আলোচনা অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন অ্যাসোসিও’র সাবেক সভাপতি আব্দুল্লাহ এইচ কাফি, ডিসিসিআই সভাপতি ওসামা তাসির, এটুআই প্রকল্প পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান এবং ইনজেনারেশন ডিজিটাল ট্রান্সফরমেশন পরিচালক মুশফিকুর রহমান।