• রবিবার, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:০৩ রাত

নষ্ট মোবাইল ফেরতে পাওয়া যাবে টাকা

  • প্রকাশিত ০৩:২৪ বিকেল ফেব্রুয়ারি ৪, ২০১৯
নষ্ট মোবাইল ফোন

প্রথম দফায় ঢাকার পাঁচ থেকে ১০টি শপিং মলে এ উদ্যোগ কার্যকর করা হবে

নষ্ট মোবাইল ফোন সেট ফেরতের বিনিময়ে টাকা দেবার উদয়োগ নিয়েছে বাংলাদেশ মোবাইল ফোন ইমপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন। দেশে মোবাইল বর্জ্যের পরিমাণ আশঙ্কাজনকহারে বাড়তে থাকায় সংস্থাটি এই উদ্যোগ নিয়েছে। সম্প্রতি বিবিসির এক প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে।

সংগঠনটির সভাপতি রুহুল আলম আল মাহবুব বলেন, "বাংলাদেশের ১০০টি শপিং মল-এ আমাদের বুথ থাকবে, যেখানে নষ্ট মোবাইল ফোন ফেরত দিয়ে টাকা পাওয়া যাবে, প্রথম দফায় ঢাকার পাঁচ থেকে ১০টি শপিং মলে এ উদ্যোগ কার্যকর করা হবে। এরপর পুরো বাংলাদেশে চালু করা হবে"। এসময় খুব শীঘ্রই এ ব্যবস্থা চালু হতে যাচ্ছে বলে জানান তিনি। তবে মোবাইল ফেরতে কত টাকা দেওয়া হবে তা নির্ভর করবে মোবাইল ফোনের অবস্থার উপর।

রুহুল আলম আল মাহবুব আরো বলেন, "ইলেকট্রনিক বর্জ্যের মাধ্যমে পরিবেশ দূষণের মাত্রা অবনতির দিকে যাচ্ছে। এই জন্যই এই উদ্যোগ"।

মোবাইল ফোন ইমপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন সূত্রে জানা যায়, বাংলাদেশে প্রতি বছর প্রায় চার কোটি মোবাইল হ্যান্ড সেট নষ্ট হয়। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে প্রতিবছরে গড়ে ৩ কোটি মোবাইল আমদানি করা হচ্ছে। ফলে এখান থেকে যে ইলেকট্রনিক বর্জ্য তৈরি হচ্ছে সেটি পরিবেশের উপর মারাত্মক প্রভাব ফেলবে বলে ধারণা করছেন পরিবেশবিদরা।

উল্লেখ্য, প্রতিবছরই বাংলাদেশে বাড়ছে ইলেকট্রনিক বর্জ্য বাড়ছে।বাংলাদেশ পরিবেশ অধিদপ্তরের এক হিসেবে বলা হয়, ২০১৮ সালে বাংলাদেশে চার লাখ টন ইলেকট্রনিক বর্জ্য হয়েছে। আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে এটি ১২ লাখ টন ছাড়িয়ে যাবে।

তাই পরিবেশ বিপর্যয়ের হাত থেকে বাঁচতে দরকার সমন্বিত উদ্যোগ। রুহুল আলম আল মাহবুব এ প্রসঙ্গে বলেন, "আমরা সম্পূর্ণ সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে কাজটি করছি। তবে এজন্য সরকার এবং রি-সাইক্লিং শিল্পকে এগিয়ে আসতে হবে।"