• রবিবার, মে ২৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:০৪ দুপুর

এশিয়ায় একীভূত হচ্ছে টেলিনর-আজিয়াটা

  • প্রকাশিত ০৩:৫৮ বিকেল মে ৬, ২০১৯
টেলিনর আজিয়াটা
ছবি: রয়টার্স

তবে আজিয়াটার অধীনে বাংলাদেশে স্বাধীনভাবেই ব্যবসা পরিচালনা করবে রবি।

এশিয়া মহাদেশে ব্যবসা একীভূত করার পরিকল্পনা করছে নরওয়ের মোবাইল নেটওয়ার্ক অপারেটর প্রতিষ্ঠান টেলিনর এবং মালয়েশিয়ার আজিয়াটা। খরচ কমিয়ে ব্যবসা বাড়ানোর লক্ষ্যে এবং এশিয়াজুড়ে ৩০ কোটি গ্রাহকের কাছে পৌঁছাতে একসঙ্গে ব্যবসা পরিচালনার লক্ষ্যে এ বিষয়ে আলোচনা চালাচ্ছে বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠান দু'টি।

টেলিনর জানায়, এই ব্যবসায়িক সমঝোতা সম্পন্ন হলে দক্ষিণ এবং দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার যৌথ ব্যবসায়িক অংশীদারিত্বের ৫৬.৫ শতাংশ যাবে টেলিনর এবং বাকি ৪৩.৫ শতাংশ যাবে আজিয়াটার হাতে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের শীর্ষ দুই মোবাইল নেটওয়ার্ক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানের মালিকানার নিয়ন্ত্রণ রয়েছে টেলিনর ও আজিয়াটার হাতে। বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোনের ৫৫ দশমিক ৮ শতাংশ শেয়ারের মালিক টেলিনর। আর গ্রাহক সংখ্যায় দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা মোবাইল ফোন অপারেটর রবির ৬৮.৭ শতাংশ শেয়ারের মালিক আজিয়াটা।

বর্তমানে গ্রামীণফোনের গ্রাহক সংখ্যা ৭ কোটি ৪০ লাখ, যা দেশের মোট মোবাইল ফোন সেবাগ্রহীতার ৪৬ শতাংশের বেশি। অন্যদিকে, রবির সেবাগ্রহীতার সংখ্যা ৪ কোটি ৭৩ লাখ, যা দেশের মোট গ্রাহক সংখ্যার প্রায় ৩০ শতাংশ।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, দুই কোম্পানি এশিয়ায় ব্যবসা একীভূত করলেও বাংলাদেশে আলাদা কোম্পানি হিসেবেই স্বাধীনভাবে ব্যবসা পরিচালনা করবে রবি এবং এর নিয়ন্ত্রণ থাকবে আজিয়াটার হাতে।

যৌথভাবে কোম্পানি দু'টি এ অঞ্চলের ৯ টি দেশের প্রায় ১০০ কোটি মানুষকে সেবা দিয়ে আসছে। এসব দেশের মধ্যে রয়েছে- বাংলাদেশ, থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া, পাকিস্তান, মিয়ানমার, শ্রীলঙ্কা এবং ইন্দোনেশিয়া।