• সোমবার, এপ্রিল ০৬, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৬:০৫ সন্ধ্যা

যুক্তরাষ্ট্রে রফতানি হবে ওয়ালটনের স্মার্টফোন

  • প্রকাশিত ০১:২৯ দুপুর ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২০
ওয়ালটন
সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে ইলেকট্রনিকস ও আইসিটি পণ্য বিক্রির জন্য বিশ্বখ্যাত ই-কমার্স জায়ান্ট অ্যামাজনের সঙ্গে চুক্তি করে ওয়ালটন

প্রথমবারের মতো যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে "মেইড ইন বাংলাদেশ" ট্যাগযুক্ত স্মার্টফোন রফতানি করতে যাচ্ছে দেশীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটন। মঙ্গলবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) ওয়ালটনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। 

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, "মেইড ইন বাংলাদেশ" ট্যাগযুক্ত ওয়ালটনের তৈরি স্মার্টফোনগুলো যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে বিক্রি হবে। অরিজিনাল ইক্যুপমেন্ট ম্যানুফ্যাকচারার (ওইএম) হিসেবে ওই ব্র্যান্ডকে স্মার্টফোন তৈরি করে দেবে ওয়ালটন। প্রতিষ্ঠানটি এশিয়া, ইউরোপ, আফ্রিকা, মধ্যপ্রাচ্যসহ বিশ্বের প্রায় ৩৫টি দেশে পণ্য রফতানি করছে।

এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে ইলেকট্রনিকস ও আইসিটি পণ্য বিক্রির জন্য বিশ্বখ্যাত ই-কমার্স জায়ান্ট অ্যামাজনের সঙ্গে চুক্তি করে ওয়ালটন। 

খুব শিগগিরই ওয়ালটন ব্র্যান্ডের ল্যাপটপ, কম্পিউটার, মোবাইল ফোন, কমপ্যাক্ট মিনি রেফ্রিজারেটর, হোম অ্যান্ড ইলেকট্রিক্যাল অ্যাপ্লায়েন্সসহ বিভিন্ন পণ্য অ্যামাজনের ওয়েবসাইটে বিক্রির জন্য উন্মুক্ত করা হবে বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। ওয়ালটনের লক্ষ্য ২০৩০ সালের মধ্যে বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ ব্র্যান্ডে পরিণত হওয়া।

স্মার্টফোনের পাশাপাশি মোবাইল ফোনের নানা যন্ত্রাংশ  এবং এক্সেসরিজও তৈরি করছে ওয়ালটন। প্রতিষ্ঠানটির কারখানায় প্রতি মাসে ২০ লাখ চার্জার, ১০ লাখ ব্যাটারি এবং ১০ লাখ ইয়ারফোনের উৎপাদনক্ষমতা রয়েছে।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল আগামী ১ মার্চ গাজীপুরের চন্দ্রায় ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডে আমেরিকায় স্মার্টফোন রফতানি কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন। এ সময় আরও উপস্থিত থাকবেন ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।