• রবিবার, মার্চ ২৯, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:২৩ রাত

ভুল করে উবারে ফেলে আসা জিনিসপত্র ফেরত পাবেন যেভাবে

  • প্রকাশিত ০২:০৭ দুপুর মার্চ ১৩, ২০২০
উবার
ছবি প্রতীকী। বিগস্টক

বাংলাদেশের উবার যাত্রীদের মধ্যে জিনিসপত্র ভুলে রেখে যাওয়ার প্রবণতা সবচেয়ে বেশি পরিলক্ষিত হয়েছে বৃহস্পতি ও শুক্রবার

তৃতীয়বারের মতো “লস্ট অ্যান্ড ফাউন্ড ইনডেক্স” প্রকাশ করেছে অ্যাপভিত্তিক রাইড শেয়ারিং সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান উবার। এতে উঠে এসেছে উবারের গাড়িতে যাত্রীদের ফেলে যাওয়া বিভিন্ন জিনিসের তথ্য। যাত্রীরা প্রায়ই যেসব জিনিসপত্র ভুলে রেখে যান এবং সপ্তাহের কোনদিন ও দিনের কোন সময় সবথেকে বেশি ভুলে যান তার ওপর ভিত্তি করেই তালিকাটি তৈরি করা হয়েছে। একইসঙ্গে জানানো হয়েছে উবারের গাড়িতে ফেলে যাওয়া জিনিসপত্র ফেরত পাওয়ার প্রক্রিয়া।

ট্রিপের সময় কোনো জিনিস হারিয়ে ফেলেন বা ভুলে ফেলে গেলে উবারের “ইন-অ্যাপ” অপশনের মাধ্যমে কীভাবে সেগুলো ফেরত পাওয়া যাবে সে সম্পর্কে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

উবারের নির্দেশনা অনুযায়ী হারানো জিনিস ফেরত পেতে হলে-

প্রথমে “মেন্যুতে” যান

 “ইয়োর ট্রিপস্” বাটনে চাপ দিন এবং যে ট্রিপে আপনি জিনিসটি ফেলে গেছেন সেটি সিলেক্ট করুন

 “রিপোর্ট অ্যান ইস্যু উইথ দিস ট্রিপ” বাটনটি সিলেক্ট করুন

 “আই লস্ট অ্যান আইটেম” বাটনটি সিলেক্ট করুন

 “কন্ট্যাক্ট মাই ড্রাইভার অ্যাবাউট এ লস্ট আইটেম” অপশনটি সিলেক্ট করুন

স্ক্রল করে নিচে নামুন এবং যে ফোন নাম্বারে আপনার সাথে যোগাযোগ করতে হবে সেটি লিখুন এবং সাবমিট করুন

যদি নিজের মোবাইল হারিয়ে যায় তাহলে কাছের কোনো মানুষের ফোন নাম্বার ব্যবহার করুন

কিছুক্ষণের মধ্যে আপনাকে কল করা হবে এবং সরাসরি চালকের সাথে সংযোগ করিয়ে দেওয়া হবে


আরও পড়ুন- উবারে যেসব জিনিস ফেলে যান বাংলাদেশিরা


যদি চালক ফোন ধরেন এবং নিশ্চিত করেন যে তার কাছে জিনিসটি আছে তাহলে তার সাথে যোগাযোগ করে দুজনের জন্য সুবিধাজনক জায়গা ও সময় ঠিক করে নিজের জিনিসটি নিয়ে নিন।

যদি চালকের সঙ্গে যোগাযোগ করতে না পারেন তাহলে অ্যাপের “ইন অ্যাপ সাপোর্ট” অপশনটি সিলেক্ট করুন এবং রিপোর্ট করুন। উবারের সাপোর্ট টিম আপনাকে সাহায্য করবে।

উবার জানিয়েছে, ২০১৯ সালে বাংলাদেশের উবার যাত্রীদের মধ্যে জিনিসপত্র ভুলে রেখে যাওয়ার প্রবণতা সবচেয়ে বেশি পরিলক্ষিত হয়েছে বৃহস্পতি ও শুক্রবার।

প্রায়ই ঢাকাবাসী উবারে যে ১০টি জিনিস ভুলে রেখে যান সেগুলো হলো- মোবাইল ফোন, ক্যামেরা, ব্যাগ ও মানিব্যাগ, কাপড়, চশমা, ছাতা, চাবি, কাঁচা বাজার, হেডফোন ও পানির বোতল।

এছাড়াও এই তালিকায় রয়েছে- ওষুধের প্রেসক্রিপশন, মিষ্টি বা চকলেটের বক্স, আর্টওয়ার্ক, স্কেচবুক ও পেন্সিল, গাজরের হালুয়া, মশারি, ক্রেস্ট, ঘিয়ের কৌটা, ক্রিকেট ব্যাট, ছবির বই, সাউন্ড বক্স, ডায়াপার, হেয়ার জেল, নেইল কাটার, হটপট সেট, বেবি স্ট্রলার, ব্লাড সুগার টেস্ট কিট, ভোল্টেজ স্ট্যাবলাইজার, টি-ব্যাগ, মেকআপ বক্স ইত্যাদি।