Monday, June 17, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

নতুন মোবাইল ফোন একটু ঘাঁটলেই হ্যাং হয়ে যাচ্ছে?

এই ধরনের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে যা করবেন

আপডেট : ২১ মে ২০২৪, ০২:১২ পিএম

মোবাইল ফোনে জরুরি কোনো কাজ করছেন, এমন সময় হঠাৎই স্থির হয়ে গেল ডিসপ্লে। কোনো কাজ তো দূরের কথা, ডিসপ্লে নড়াচড়াই করছে না। এরকম স্থবির অবস্থা বেশ খানিকটা সময় থাকে, আর মাঝে মধ্যেই ঘটে এমন ঘটনা। অনেক ক্ষেত্রে কোনো একটা অ্যাপ খুলতেও এত সময় লাগে যে, ধৈর্য ধরে রাখাই কঠিন হয়ে পড়ে। অথচ মোবাইল ফোনের বয়স খুব বেশি না।

সাধারণত মোবাইল ফোন যত পুরনো হতে থাকে, এই ধরনের “হ্যাং” হওয়ার সমস্যাটি ততো বাড়তে থাকে। কিন্তু অল্প দিনেই এমন সমস্যা বেশ বিরক্তিকর।

এখন প্রশ্ন হলো নতুন মোবাইল ফোনে এমন সমস্যা দেখা দেওয়ার কারণ কী? আর এ থেকে মুক্তির উপায়ই বা কী? চলুন, আনন্দবাজার পত্রিকা অবলম্বনে জেনে নেওয়া যাক সে সম্পর্কে-

মোবাইল ফোনের র‌্যাম কম থাকলে অনেক ক্ষেত্রে এমন সমস্যা দেখা দেয়। তাই ফোন কেনার আগে র‌্যাম যাচাই করে নেওয়া জরুরি। র‌্যাম কম থাকলে বেশি ভারি এইচডি ভিডিও কিংবা গেম ডাউনলোড করবেন না। তাহলে হ্যাং হওয়ার এই বিড়ম্বনা থেকে বাঁচা যাবে।

মাঝেমধ্যেই অনেক অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ আমরা নামিয়ে ফেলি, কিন্তু সেগুলো আমাদের তেমন কোনো কাজেই লাগে না। দীর্ঘদিন পর্যন্ত হয়তো সেগুলো খুলেও দেখা হয় না। এগুলো অযথা ফোনের জায়গা জুড়ে থাকে। যার ফলে ফোনের ওপর চাপ পড়ে। তাই যেসব অ্যাপ নিত্যপ্রয়োজনে লাগে না, সেগুলো ডিলিট করে ফেলুন।

অ্যান্ড্রয়েড ফোনের জন্য স্মার্ট ক্লিনারের অ্যাপ প্লে স্টোরে পাওয়া যায়। রেটিং বেশি এমন কোনো ক্লিনার নামিয়ে নিন। নিয়মিত ক্লিনারের মাধ্যমে স্টোরেজ স্পেস ক্লিয়ার করুন। এতে নতুন ছবি, গান, ভিডিও সেভ করার জায়গা পাবেন। আবার ফোনও তাড়াতাড়ি কাজ করবে। হ্যাং করার সম্ভাবনা কমবে।

নিয়মিত ইন্টারনাল মেমরির ক্যাশে পরিষ্কার করা জরুরি। না হলে মেমরি স্টোরেজ ভরে যেতে থাকে। ফলে প্রতিবার ব্যবহারের সময় এমন সমস্যা দেখা দিতে পারে। ফোনের স্টোরেজও বেশি ব্যবহার করা যাবে না। পরিবর্তে এক্সটারনাল স্টোরেজ ব্যবহার করুন। তাতে হ্যাং হয়ে যাওয়ার ঝুঁকি কম থাকে।

এছাড়া, একসঙ্গে একাধিক অ্যাপ ব্যবহার করলেও হ্যাং হওয়ার এমন সমস্যা হতে পারে। ফোনে র‌্যাম কম থাকলে এ ঝুঁকি আরও বেশি। তাই একসঙ্গে একাধিক অ্যাপ খুলবেন না।

About

Popular Links