Saturday, May 18, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

দেড় মিলিয়ন ডলারে বিক্রি হলো কনজুরিংয়ের সেই ভৌতিক বাড়ি!

বিক্রি করে দিলেও ক্রেতার ওপর কয়েকটি শর্ত জুড়ে দিয়েছেন তারা

আপডেট : ২৭ মে ২০২২, ০৯:২৭ পিএম

আপনি যদি ভৌতিক ঘরানার চলচ্চিত্রপ্রেমী হয়ে থাকেন তাহলে এতক্ষণে বুঝে গেছেন কোন বাড়িটি নিয়ে নতুন করে আলোচনার ঝড় শুরু হয়েছে। হলিউডের জনপ্রিয় চলচ্চিত্র “কনজুরিং”-এর প্রথম কিস্তিতে দেখা মিলেছিল ২৮৬ বছর বয়সী রড আইল্যান্ডের ভৌতিক বাড়িটির।

দোতলা এই ফার্মহাউজটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে কুখ্যাত ভুতুড়ে বাড়িগুলোর মধ্যে একটি। এই বাড়িকে ঘিরে ঘটা বেশ কয়েকটি রহস্যময় ঘটনাকে কেন্দ্র করেই ২০১৩ সালে বক্স অফিস কাঁপানো হরর ফিল্ম “দ্য কনজুরিং” নির্মাণ করা হয়েছিল।

অতিপ্রাকৃত ঘটনা তদন্তকারী জেন এবং কোরি হেইনজেন দম্পতি ২০১৯ সালে প্রায় ৩ হাজার ১০০ বর্গফুটের এই বাড়িটি ৪ লাখ ৩৯ হাজার ডলারে কিনেছিলেন। ২০২১ সালের সেপ্টেম্বরে যখন তারা বাড়িটি বিক্রির জন্য তালিকাভুক্ত করেন তখন বিক্রি মূল্য হিসেবে ১০ লাখ ২০ হাজার ডলার চেয়েছিলেন।

দরদামের পর দেড় মিলিয়ন ডলার বা ১৩ কোটি ১৭ লাখ ২৩ হাজার টাকায় বাড়িটি কিনে নেন বোস্টনের একজন রিয়েল-এস্টেট ব্যবসায়ী জ্যাকলিন নুনেজ। বাড়ি বিক্রির বিষয়টি ঘোষণা করে হেইনজেন দম্পতি বৃহস্পতিবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি লাইভ করার কথাও জানিয়েছেন।


ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তিন বেডরুমের বাড়িটির জন্য বেশ কয়েকটি অফার পেয়েছিলেন হেইনজেন দম্পতি। কিন্তু, সাক্ষাৎকার ছাড়া বাড়িটি কারও হাতে তুলে দিতে রাজি হননি তারা।

এদিকে, বিক্রি করে দিলেও ক্রেতার ওপর কয়েকটি শর্ত জুড়ে দিয়েছেন তারা। যার মধ্যে আছে- জীবনের নিরাপত্তার জন্য ক্রেতারা বাড়িতে থাকতে পারবেন না, নতুন মালিককেও ব্যবসা হিসেবে বাড়িটি ব্যবহার করা চালিয়ে যেতে হবে এবং দর্শকদের রাতে থাকার অনুমতি দিতে হবে। 

এছাড়া, অলৌকিক কার্যকলাপের তদন্ত পরিচালনাকারী সংগঠনগুলোকেও বাড়িতে তাদের কাজ করতে দেওয়ার অনুমতি দিতে হবে।

১৯৭১ সাল থেকে ১৯৮০ সাল পর্যন্ত বাড়ির মালিক ছিলেন আন্দ্রেয়া পেরন (৬৩)। পরিবারের সঙ্গে বাড়িটিতে থাকার সময় নানান অলৌকিক ঘটনা দেখেছেন তিনি। এক সাক্ষাৎকারে পেরন জানান, বাড়িটি তার নতুন মালিক বেছে নিয়েছে।

তিনি বলেন, “আমি বিশ্বাস করি বাড়িটি জ্যাকলিনকে বেছে নিয়েছে যেভাবে এটি আমাদের বেছে নিয়েছিল। বাড়িটি জ্যাকলিনের আলো চায়।”

এদিকে, বাড়ির নতুন মালিক জানিয়েছেন, তিনি মোটেও আতঙ্কিত নন। তবে, এই একই প্রশ্ন তাকে এক যেন এক বছর আবারও করা হয়।

About

Popular Links