Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মিরপুর চিড়িয়াখানায় বন্দি হায়েনা কামড়ে নিয়ে গেল শিশুর হাত

হায়েনা শিশুটির হাতের যে অংশ নিয়ে গেছে সেটি আর পাওয়া যায়নি

আপডেট : ০৮ জুন ২০২৩, ০৮:০৩ পিএম

রাজধানী ঢাকার মিরপুরে জাতীয় চিড়িয়াখানায় খাঁচাবন্দি হায়েনা দুই বছরের এক শিশুর হাত কামড়ে নিয়ে গেছে। কামড়ের একপর্যায়ে শিশুটির ডান হাতের কব্জি বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। চিড়িয়াখানার লোকজনের সহায়তায় প্রথমে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। পরবর্তীতে তাকে পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়।

বৃহস্পতিবার (৮ জুন) দুপুর ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে অনলাইন সংবাদমাধ্যম বাংলা ট্রিবিউন।

ভুক্তভোগী শিশুটির নাম সাইফ। সাইফের বাবা গার্মেন্টকর্মী মো. সুমন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, “আমি আশুলিয়া এলাকায় একটি গার্মেন্টে কাজ করি। আজ সকালে ছেলে সাইফকে নিয়ে আমার স্ত্রী এলাকার আরও কয়েকজনের সঙ্গে চিড়িয়াখানায় যায়। দুপুর ১২টার দিকে চিড়িয়াখানায় হায়েনার খাঁচার সামনে মায়ের কোল থেকে নামে সাইফ। হঠাৎই হায়েনার খাঁচার সামনে চলে যায়। খাঁচার ফাঁকা দিয়ে হাত ঢুকিয়ে দিলে হায়েনাটি কামড় দেয়। কামড়ের একপর্যায়ে ডান হাতের কব্জি থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। পরে চিড়িয়াখানার লোকজনের সহায়তায় প্রথমে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। পরবর্তীতে তারা পঙ্গু হাসপাতালে পাঠায়।”

চিড়িয়াখানার সরকারী পরিচালক মুজিবুর রহমান জানান, আহত শিশুটি বর্তমানে রাজধানীর পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে। এরই মধ্যে তার এক দফা অস্ত্রোপচার হয়েছে। চিকিৎসার প্রাথমিক ব্যয়বহন করেছে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ। হায়েনা শিশুটির হাতের যে অংশ নিয়ে গেছে সেটি আর পাওয়া যায়নি।

তিনি বলেন, “ঘটনার পরপরই আমরা শিশুটিকে নিয়ে চিকিৎসার জন্য সব ব্যবস্থা করি। পঙ্গু হাসপাতালে এখনও শিশুটি চিকিৎসা সহায়তার জন্য আমাদের একজন কর্মকর্তা রয়েছেন। তিনি সবকিছু দেখভাল করছেন।”

মুজিবুর রহমান আরও বলেন, “বিভিন্ন উৎসবকে কেন্দ্র করে লোকসমাগম থাকলেও এ ধরনের ঘটনা ঘটেনি। এ ঘটনার পরপরই সব ধরনের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। এ ঘটনার প্রকৃত কারণ অনুসন্ধানের চেষ্টা চালানো হচ্ছে। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলা হচ্ছে। তারা এ বিষয়টি দেখছেন।”

About

Popular Links