Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

বই লিখে বাড়িতে সময় কাটাবেন সদ্য সাবেক রাষ্ট্রপতি হামিদ

সদ্য সাবেক রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ২০১৩ সালে এপ্রিলে প্রথম মেয়াদে এবং ২০১৮ সালে দ্বিতীয় মেয়াদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন

আপডেট : ২৪ এপ্রিল ২০২৩, ০৬:০০ পিএম

বাংলাদেশের ২২তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন মো. সাহাবুদ্দিন। দুই মেয়াদে টানা ১০ বছর রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব পালন করা রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের স্থলাভিষিক্ত হলেন তিনি।

সদ্য সাবেক রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ সক্রিয়ভাবে রাজনীতি করবেন না বলে জানিয়েছেন। নতুন রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিনের শপথ গ্রহণের পর বঙ্গভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন আবদুল হামিদ।

তিনি বলেন, “আমি তো এখন রিটায়ার্ড হয়ে গেছি। দোজ হু আর টায়ার্ড, দে গো ফর রিটায়ার্ড। এখন বাড়িতে বসে থেকে কিছু লেখালেখি করতে পারি। কিন্তু সক্রিয়ভাবে রাজনীতি করার পরিকল্পনা নেই। কারণ, দেশের মানুষ আমাকে এত বড় ইজ্জত দিয়ে দুই মেয়াদে দেশের সর্বোচ্চ পদে রাষ্ট্রপতি করেছে। সুতরাং আবার আমি রাজনীতি করা বা অন্য কোনো পদে যাব- এটা করলে এ দেশের মানুষকে আমি হেয় করব। সুতরাং সেটা আমি করব না।”

সাংবাদিকরা জানতে চেয়েছিল, “আপনি সাধারণ মানুষের সঙ্গে চলতে ভালোবাসেন। বলছেন, ১০ বছর অনেকটা বেড়াজালের মধ্যে ছিলেন। এখন কীভাবে সাধারণ মানুষের সঙ্গে মিশবেন?” 

এর উত্তরে আবদুল হামিদ বলেন, “আমি ১০ বছর বন্দী থাকলেও তাদের (সাধারণ মানুষ) প্রতি আমার ভালোবাসা ছিল না, তা নয়। সেটা ছিল। তবে কাছে গিয়ে সবার কাছে প্রকাশ করতে পারি নাই। এখন অনেকের কাছে সেটা প্রকাশ করতে পারব।”

দুই মেয়াদে দীর্ঘ ১০ বছর দায়িত্ব পালনের বিষয়ে তিনি বলেন, “এটা বাংলাদেশে হয়নি, পার্শ্ববর্তী ভারতে দুবার হয়েছে, কিন্তু ১০ বছর কেউ ছিল না। আবার পাকিস্তানে তো পাঁচ বছরের ওপরে কেউ ছিল না। সুতরাং এ উপমহাদেশেই আমার মনে হয় আমিই সবচেয়ে বেশি সময় রাষ্ট্রপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি। কারণ, ১০ বছর ছাড়াও আরও বোধ হয় ৪১ দিন বেশি আছে ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রপতি, অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি হিসেবে দায়িত্ব পালনের সময়।”

সদ্য সাবেক রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ২০১৩ সালে এপ্রিলে প্রথম মেয়াদে এবং ২০১৮ সালে দ্বিতীয় মেয়াদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন। তার আগে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি মো. জিল্লুর রহমানের অসুস্থতার সময় এবং তার মৃত্যুতে জাতীয় সংসদের স্পিকার থাকার সময় মো. আবদুল হামিদ ৪১ দিন ভারপ্রাপ্ত ও অস্থায়ী রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব পালন করেছিলেন। এর মাধ্যমে বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি সময় রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব পালন করার গৌরব অর্জন করেন তিনি।

সংবিধান অনুসারে, দুই মেয়াদের বেশি কেউ রাষ্ট্রপতি পদে থাকতে পারেন না। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর আবদুল হামিদ ছাড়া আরও ১৬ জন রাষ্ট্রপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

আবদুল হামিদ ১৯৭০ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে পাকিস্তান জাতীয় পরিষদের সর্বকনিষ্ঠ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি স্বাধীন বাংলাদেশে সাতবার জাতীয় সংসদের সদস্য নির্বাচিত হন। রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব ছাড়াও জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার ও স্পিকার, বিরোধী দলের উপনেতা হিসেবে দায়িত্ব পালনের গৌরব অর্জন করেন তিনি।

About

Popular Links