Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

টিপু-প্রীতি হত্যা: ওমান থেকে ফিরিয়ে আনা হলো মুসাকে

গত ১৭ মে ওমানের উত্তর-পশ্চিম অঞ্চলের শহর সালালাহ থেকে মুসাকে আটক করা হয়

আপডেট : ০৯ জুন ২০২২, ১২:০৬ পিএম

রাজধানীর মতিঝিলে আওয়ামী লীগ নেতা জাহিদুল ইসলাম টিপুসহ জোড়া খুনের মামলার প্রধান আসামি সুমন শিকদার ওরফে মুসাকে ওমান থেকে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৯ জুন) সকাল ১১টার দিকে ওমানের রাজধানী মাসকাট থেকে মুসাকে নিয়ে পুলিশের তিন সদস্যের একটি দল ঢাকায় পৌঁছায়।

এর আগে, ওমানের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) থেকে বাংলাদেশ পুলিশ দলের কাছে মুসাকে হস্তান্তর করা হয়।

গত ২৪ মার্চ দিবাগত রাত সোয়া ১০টার দিকে রাজধানীর শাহজাহানপুরের আমতলা জামে মসজিদের কাছে টিপুকে গুলি করে হত্যা করা হয়। তিনি নিজের মাইক্রোবাসে করে বাড়ি ফিরছিলেন। গাড়িটি যানজটে পড়ার কয়েক মিনিটের মধ্যে একটি মোটরসাইকেল করে আসা হেলমেট পরা এক যুবক টিপুকে লক্ষ্য করে গুলি করেন। এ সময় এলোপাথাড়ি গুলিতে নিহত হন কলেজছাত্রী সামিয়া আফরান প্রীতি।

গোয়েন্দা সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, টিপু হত্যাকাণ্ডের পরিকল্পনার পর মোল্লা শামীমকে দায়িত্ব দিয়ে গত ১২ মার্চ দুবাই চলে যান মুসা। হত্যাকাণ্ডের পর তদন্তে মুসার নাম আসলে দুবাই থেকে সে পালিয়ে ওমান চলে যায়। মামলার তদন্ত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা মুসার পাসপোর্ট সংগ্রহ করে পুলিশ সদর দফতরের এনসিবি শাখার মাধ্যমে রয়েল পুলিশ অব ওমানের এনসিবি শাখাকে চিঠির মাধ্যমে মুসাকে গ্রেপ্তারে সহযোগিতা চায়।

বাংলাদেশ পুলিশের অনুরোধে গত ১৭ মে ওমানের উত্তর-পশ্চিম অঞ্চলের শহর সালালাহ থেকে মুসাকে আটক করা হয়। পরে ওমানের পুলিশ বিষয়টি বাংলাদেশ পুলিশকে জানালে সংস্থাটির পক্ষ থেকে তিন সদস্যের একটি টিম মুসাকে দেশে ফিরিয়ে আনতে ওমান যায়।

About

Popular Links