Saturday, June 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

জুনে ভারী বৃষ্টি, বন্যার আশঙ্কা

জুন মাসে চার থেকে ছয় দিন হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বজ্রঝড় এবং কোথাও কোথাও এক থেকে দুইটি মাঝারি ও মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে

আপডেট : ০২ জুন ২০২৪, ১০:০২ পিএম

ভারী বৃষ্টির কারণে জুন মাসে দেশের উত্তরাঞ্চল, উত্তর-পূর্বাঞ্চল এবং দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের কিছু স্থানে স্বল্পমেয়াদি বন্যার হতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

রবিবার (২ জুন) জুন মাসের আবহাওয়ার দীর্ঘমেয়াদি পূর্বাভাসে এসব তথ্য জানান আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক মো. আজিজুর রহমান।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, জুন মাসে স্বাভাবিক বৃষ্টি হতে পারে। প্রথম সপ্তাহের প্রথমার্ধে সারাদেশে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু (বর্ষাকাল) বিস্তার লাভ করতে পারে। এক থেকে দুটি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে। যার মধ্যে একটি মৌসুমি নিম্নচাপে পরিণত হতে পারে।

জুন মাসে চার থেকে ছয় দিন হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বজ্রঝড় হতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

বিজ্ঞপ্তিতে আবহাওয়া অধিদপ্তর বলেছে, জুনে দেশের কোথাও কোথাও এক থেকে দুটি মৃদু ও মাঝারি তাপপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। দিন ও রাতের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি থাকতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তররের তথ্যমতে, গেল মে মাসে দেশে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে। এই মাসে স্বাভাবিক বৃষ্টিপাতের হার ২৮৪ মিলিমিটার। এ সময় সবচেয়ে বেশি ৭৪১ মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়েছে সিলেটে। আর বরিশালে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৮৮ মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়। তবে রাজশাহী ও রংপুর বিভাগে স্বাভাবিকের চেয়ে কম বৃষ্টি হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড় রিমাল বাংলাদেশের উপকূল অতিক্রম করার সময় পটুয়াখালী ও খেপুপাড়ায় বাতাসের সর্বোচ্চ গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১১১ কিলোমিটার। এ সময় নারায়ণগঞ্জে দৈনিক সর্বোচ্চ ৩০০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়।

About

Popular Links