Friday, June 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

‘আরও কাছে আসার’ আহ্বান জানিয়ে কিমকে চিঠি পুতিনের

পশ্চিমা বিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্ন কোরীয় উপদ্বীপের দেশটির স্বাধীনতা দিবসে এবার কিম জং উনকেও বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে সম্পর্ক উন্নয়নের আহ্বান জানালেন রুশ প্রেসিডেন্ট

আপডেট : ১৫ আগস্ট ২০২২, ০৩:১৬ পিএম

ইউক্রেনে অভিযান শুরুর পর থেকেই রাশিয়ার প্রতি সমর্থন জানিয়ে আসছে উত্তর কোরিয়া।

পশ্চিমা বিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্ন কোরীয় উপদ্বীপের দেশটির স্বাধীনতা দিবসে এবার কিম জং উনকেও বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে সম্পর্ক উন্নয়নের আহ্বান জানালেন রুশ প্রেসিডেন্ট।

সোমবার (১৫ আগস্ট) পিয়ংইয়ংয়ের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের (কোরিয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি) বরাতে এ তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসি।

উত্তর কোরিয়ার স্বাধীনতা দিবসে দেশটির নেতা কিম জং উনকে লেখা এক চিঠিতে পুতিন বলেছেন, স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়ে দুই দেশের মধ্যে বন্ধন আরও গভীর হবে। যা কোরীয় উপদ্বীপ এবং উত্তর-পূর্ব এশীয় অঞ্চলের নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা জোরদার করতে সাহায্য করবে।’’

পুতিনের চিঠির জবাবে কিমও একটি চিঠি পাঠিয়েছেন। চিঠিতে কিম বলেছেন, ‘‘দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে জাপানের বিরুদ্ধে বিজয়ের মধ্য দিয়ে রাশিয়া-উত্তর কোরিয়ার বন্ধুত্ব গড়ে উঠেছিল।’’

কিম বলেন, ‘‘জাপান বিরোধী যুদ্ধকে কেন্দ্র করে গড়ে ওঠা রাশিয়া-উত্তর কোরিয়ার বন্ধুত্ব শতাব্দীর পর শতাব্দী ধরে আরও সংহত ও শক্তিশালী হয়েছে।’’

চিঠিতে কিম উল্লেখ করেন, ‘‘দুই দেশের মধ্যে কৌশলগত সহযোগিতা, সমর্থন ও সংহতি এক নতুন মাত্রায় উন্নীত হয়েছে, যা হুমকি ও উসকানিদাতা শত্রুপক্ষের সামরিক বাহিনীকে হতাশায় ডোবাবে।’’

শত্রুপক্ষ কে, তা অবশ্য স্পষ্ট করেনি কোরিয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি। তবে সাধারণত শব্দটি যুক্তরাষ্ট্র ও এর জোটকে নির্দেশ করে থাকে।  

২০১৯ সালে পুতিনের সঙ্গে সাক্ষাতের সময় যে চুক্তিটি হয়েছিল, তার ওপর ভিত্তি করে মস্কো- পিয়ংইয়ংয়ের মধ্যে সহযোগিতার সম্পর্ক গড়ে উঠবে বলে কিম আশা করেছেন।

About

Popular Links