Sunday, May 26, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

রেলমন্ত্রীর ‘শালা বা সম্বন্ধীর ছেলে’ ও একজন টিটিই

সুজন সাহেবের শালার ছেলেদের সঙ্গে কিরকম আচরণ করতে হবে তার একটা গাইডলাইন নিশ্চয়ই তৈরি করে রাখবেন মাননীয় কর্মকর্তারা

আপডেট : ০৮ মে ২০২২, ১১:৩২ এএম

আলোচনায় এখন সুজন। যারা জানেন তারা জানেন, ক্রিকেটার খালেদ মাহমুদই শুধু নন আমাদের রেলমন্ত্রীও সুজন, নূরুল ইসলাম সুজন।

আমাদের এই সুজনটি মাত্রই গত বছর বিয়ে করেছেন তাই তিনি প্রায় আনকোরা নতুন জামাই। শ্বশুরবাড়ির মানুষ জনকে ইমপ্রেস করাটা নতুন জামাইয়ের জন্য একধরনের কর্তব্যই।

খবরে জানা গেল, রেলমন্ত্রীর স্ত্রীর ভাগনে বিনা টিকিটে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কামরায় রেলভ্রমণ করছিলেন। টিটিই এসে তাদের জরিমানা করেন আর কামরা থেকে বের করে দেন। গত বৃহস্পতিবার রাতের এ ঘটনার পর ওই টিটিইকে মুঠোফোনে বরখাস্ত করার কথা জানিয়ে দেওয়া হয়। শুক্রবার তিনি আর কাজে যোগ দিতে পারেননি।


আরও পড়ুন- রেলমন্ত্রীর ‘আত্মীয়দের’ জরিমানা করা টিটিইকে ব্যাখ্যা জানাতে তলব


স্ত্রীর ভাগনে মানে রেলমন্ত্রীর শালা বা সম্বন্ধীর সন্তান। বুঝলেন কি-না? মন্ত্রীর শালার পো জেনেও টিটিই যে হঠাৎ কর্তব্যপরায়ণ হয়ে উঠলেন সেটিও পরীক্ষা করে দেখা যেতে পারে। আমাদের রেলের কামরায় কামরায় এরকম টিটিই থাকলে বিনা পয়সায় ভ্রমণ একেবারে বন্ধ হয়ে যাওয়ার কথা।

সে যাক, শালা বা সম্বন্ধীর ছেলেদের বিষয়ে মন্ত্রীর কাছ থেকে এখনও কিছু শুনিনি আমরা। তবে সুজন-সখা হয়ে কথা বলেছেন, পশ্চিম রেলের পাকশী বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা (ডিসিও) নাসির উদ্দিন। তিনি দৈনিক প্রথম আলোকে বলেন, “জরিমানা করার জন্য তাকে বরখাস্ত করা হয়নি। তার বিরুদ্ধে তিন যাত্রীকে হয়রানি ও অশোভন আচরণ করার অভিযোগ পাওয়ায় সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।”


আরও পড়ুন- বিনা টিকিটের রেলযাত্রী ‘আত্মীয়দের’ চেনেন না রেলমন্ত্রী!


বাহ্। অভিযোগের প্রেক্ষিতে বরখাস্ত! ওই অভিযোগ কে করল মশাই, মন্ত্রীর শালা বা সম্বন্ধীর পুত্ররা তো, তাই না? রেলের বিনাটিকিটের যাত্রীরা টিটিইর বিরুদ্ধে তো অভিযোগ করতেই পারেন। তাই বলে রাত পোহাতে পারল না তিনি বরখাস্ত!

রেল কর্মকর্তা আরও জানিয়েছেন, ওই টিটিইকে নাকি কারণ দর্শাও নোটিশ দেওয়া হচ্ছে। যথাযথ জবাব দিতে পারলে বরখাস্তের আদেশ প্রত্যাহার করা হতে পারে। আশার সংবাদ, কী বলেন?


আরও পড়ুন- বিনা টিকিটে ভ্রমণ করা রেলমন্ত্রীর ‘আত্মীয়’কে জরিমানা, অতঃপর টিটিই বরখাস্ত


সুজন সাহেবের শালার ছেলেদের সঙ্গে কিরকম আচরণ করতে হবে তার একটা গাইডলাইন নিশ্চয়ই তৈরি করে রাখবেন মাননীয় কর্মকর্তারা। রেল ভবনের শীতাতপে বসে মাথা না ঘামিয়ে পয়েন্ট বাই পয়েন্ট লিখে দিতে পারেন, মন্ত্রীর শালাদের বা শালা-সম্বন্ধীর ছেলেমেয়েদের কী কী আদব-কায়দা দেখাতে হবে? দেখলে কত লম্বা সালাম দিতে হবে, মন্ত্রীর বিশেষ করে মন্ত্রীর স্ত্রীদিগের আত্মীয়ের কাছে টিকিট দেখতে চাওয়া বিশেষ দুর্ব্যবহার হিসেবে বিবেচিত হবে, ইত্যাদি।

শুনুন, জনাব সুজন, এই ঘটনার একটি ব্যাখ্যা আপনি জাতির কাছে দেবেন। আশকথা পাশকথা না, স্পষ্ট করে বলবেন, বিনা টিকিটের ওই তিন যাত্রী আপনার আত্মীয় কি-না? আপনার এরকম আত্মীয় স্বজন আর কয়জন? এইসব আত্মীয়রা কি মাগনাই ট্রেনে চড়বে? এসি কামরাতেই যাতায়াত করবে? টিটিইকে কী শাস্তি দেবেন বলে ভাবছেন?


আরও পড়ুন- বাংলাদেশের ভেতর দিয়ে দুই রাজ্যের রেল সংযোগ চায় ভারত


আর একটা ছোট্ট কৌতূহল, শালার ছেলেদের এসি কামরা থেকে বের করে জরিমানা যে করেছিল, সেই টিটিই বরখাস্ত হওয়ায় শ্বশুরবাড়িতে কি মাছের মুড়ো ডবল পাচ্ছেন, নাকি পাবেন এরকম আশা দিয়ে রেখেছেন তারা?


সংবাদ বিশ্লেষণটি ডয়চে ভেলে'র সঙ্গে অংশীদারীত্বের ভিত্তিতে প্রকাশিত




About

Popular Links