Saturday, May 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

‘ফ্যাসিবাদ বিরোধী ছাত্রঐক্য’র আত্মপ্রকাশ, নেতৃত্বে ছাত্রদল

‘ফ্যাসিবাদ বিরোধী ছাত্রঐক্য’র সমন্বয়ক ও ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি মশিউর রহমান রিচার্ড বলেন, বৃহত্তর জাতীয় স্বার্থে দেশের মানুষকে সঙ্গে নিয়ে ছাত্র-গণঅভ্যুত্থান সৃষ্টি করাই এই জোটের অন্যতম প্রধান লক্ষ্য

আপডেট : ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৫:১২ পিএম

ভোটাধিকার, সন্ত্রাস-দখলদারিমুক্ত নিরাপদ ক্যাম্পাস, সর্বজনীন শিক্ষা ও গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে “ফ্যাসিবাদ বিরোধী ছাত্রঐক্য” নামে নতুন জোটের আত্মপ্রকাশ হয়েছে। জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের নেতৃত্বে এই জোটে রয়েছে ১৫টি ছাত্র সংগঠন।

শুক্রবার (২৯ সেপ্টেম্বর) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির নসরুল হামিদ মিলনায়তনে ছাত্র সংগঠনগুলোর এক সভায় এই নতুন ছাত্র জোটের নাম ঘোষণা করেন ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক সাঈফ মাহমুদ জুয়েল।

জোটের ১৫টি সংগঠন হলো- জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল, ছাত্র ফেডারেশন, ছাত্র অধিকার পরিষদ, ছাত্রলীগ (জেএসডি), গণতান্ত্রিক ছাত্র দল (এলডিপি), নাগরিক ছাত্র ঐক্য, জাগপা ছাত্রলীগ, ছাত্র ফোরাম (গণফোরাম, মন্টু), ভাসানী ছাত্র পরিষদ, জাতীয় ছাত্র সমাজ (কাজী জাফর), জাতীয় ছাত্র সমাজ (বিজেপি-পার্থ), জাগপা ছাত্রলীগ (খন্দকার লুৎফর), ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ, বিপ্লবী ছাত্র সংহতি এবং রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলন।

জোটে তিন জনকে ফ্যাসিবাদবিরোধী ছাত্রঐক্যের সমন্বয়ক নির্বাচিত করা হয়েছে। তারা হলেন- ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রাশেদ ইকবাল খান, ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি মশিউর রহমান রিচার্ড ও ছাত্র অধিকার পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম আদীব।

এছাড়া ছাত্র সংগঠনগুলোর কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা কেন্দ্রীয় সমন্বয় পরিষদের সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। আর মুখপাত্র হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েল।

আত্মপ্রকাশ করা ছাত্র জোটের ৯ দফা দাবি

ফ্যাসিবাদবিরোধী ছাত্রঐক্য ৯ দফা দাবি পেশ করেছে। তার মধ্যে রয়েছে- শিক্ষার মান উন্নয়ন, মাতৃভাষায় শিক্ষা ব্যবস্থা গড়ে তুলতে জাতীয় অনুবাদ সংস্থা গঠন, মেধা ও যোগ্যতার শিক্ষাগ্রহণ ও কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি, সকল জাতিসত্ত্বার সাংবিধানিক স্বীকৃতি, শিক্ষাঙ্গনগুলোকে সন্ত্রাস ও দখলদারিমুক্ত করা, ছাত্র সংসদ নির্বাচন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সকল ছাত্র সংগঠনের সহাবস্থান প্রভৃতির দাবির পাশাপাশি সরকারের পদত্যাগ, নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন ও রাষ্ট্রে সংস্কারে সরকারবিরোধী আন্দোলনে রাজনৈতিক দলগুলো ৩১ দফা, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং সাইবার সিকিউরিটি আইনসহ নিবর্তনমূলক সকল কালা-কানুন বাতিল।

স্বনির্ভর, সমৃদ্ধশালী, গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ গড়ে তুলতে ভোটাধিকার বঞ্চিত সকল মানুষকে রাজপথের সংগ্রামে অংশ নেওয়ার আহ্বান জানান জোটের মুখপাত্র ও ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েল।

গণঅভ্যুত্থান তৈরি করা জোটের প্রধান লক্ষ্য

বৃহত্তর জাতীয় স্বার্থে দেশের মানুষকে সঙ্গে নিয়ে ছাত্র-গণঅভ্যুত্থান সৃষ্টি করাই এই জোটের অন্যতম প্রধান লক্ষ্য বলে জানান “ফ্যাসিবাদ বিরোধী ছাত্রঐক্যের সমন্বয়ক ও ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি মশিউর রহমান রিচার্ড।

তিনি ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, “ফ্যাসিবাদ বিরোধী ছাত্রঐক্য শিক্ষার্থীদের সামনে সম্মান ও মর্যাদার প্রস্তাবনা নিয়ে হাজির হয়েছে। বর্তমান ফ্যাসিবাদি সরকারের পদত্যাগই ছাত্রসমাজের প্রধান চাওয়া বলে আমরা মনে করি। আমরা ভোটাধিকার, ভয়মুক্ত নিরাপদ ক্যাম্পাস এবং সার্বজনীন শিক্ষা ব্যবস্থা ও গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার ৯ দফা প্রস্তাবনার ভিত্তিতে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ছাত্রসমাজের মাঝে সাহস ও শক্তি সঞ্চার করতে চাই। জাতিয় বৃহত্তর স্বার্থে দেশের মানুষকে যুক্ত করে গণঅভ্যুত্থান সৃষ্টি করাই আমাদের এই জোটের প্রধান লক্ষ্য।”

About

Popular Links