Saturday, May 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মার্টিনেজ: বাংলাদেশে হৃদয়ের একটি অংশ রেখে যাচ্ছি

‘এখানকার মানুষ, তাদের ভালোবাসা, যত্ন এবং অতুলনীয় আতিথেয়তায় আমার হৃদয় সত্যিই বিগলিত’

আপডেট : ০৩ জুলাই ২০২৩, ১০:০৪ পিএম

বাংলাদেশের অধিকাংশ আর্জেন্টাইন সমর্থকের কাছে বাজপাখি হিসেবে পরিচিত এমিলিয়ানো মার্টিনেজ। আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপজয়ী গোলরক্ষকেরও সেটি অজানা নয়। গত কোপা আমেরিকা ও বিশ্বকাপে অসাধারণ পারফর্ম করা আর্জেন্টিনার গোলরক্ষকের প্রতি তাদের ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ এটি।

তথ্য ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক জানিয়েছেন, “বাজপাখি” পরিচয় দিতে পেরে মার্টিনেজ বেশ আনন্দিত ও গর্বিত।

তার মূল সফরটি কলকাতায়। সেখানে যাওয়ার আগে বাংলাদেশে আবেগের ছোঁয়া খানিকটা নিতেই তার এখানে আসা। তবে মাত্র ১১ ঘণ্টার সফরে সীমাবদ্ধতার কারণে ভক্ত-সমর্থকদের উন্মাদনা সামনে থেকে দেখতে পাননি তিনি।

তার বাংলাদেশ সফরের পৃষ্ঠপোষক নেক্সট ভেঞ্চার্সের কার্যালয়ে সকালে আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে অংশ নেন এমিলিয়ানো। সেখানে ছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা এবং সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এরপর দুপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন এমিলিয়ানো।

বিদায়বেলায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইন্সটাগ্রামে বাংলাদেশ সফরের পাঁচটি ছবি পোস্ট করেছেন এমিলিয়ানো। দুটি ছবি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে, একটি ছবি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রীর কাছ থেকে উপহার নেওয়ার এবং আরেকটি নেক্সট ভেঞ্চার্সের কার্যালয়ে সেলফি। ওই পোস্টের ক্যাপশনে তিনি জানিয়েছেন, এখানকার মানুষের ভালোবাসা তাকে দারুণভাবে স্পর্শ করেছে।

চেনা-অচেনা বহু মানুষের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করে মার্টিনেজ লিখেছেন, “প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, পুলিশ, বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ এবং আরও অনেকের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি, যাদের নামও হয়তো জানি না, কিন্তু তাদের প্রয়াসও কম গুরুত্বপূর্ণ নয়। বাংলাদেশের সঙ্গে এখন আমার যে বিশেষ বন্ধনের জন্ম হলো, তা গড়ে তোলায় আপনাদের সবার ভূমিকা আছে।”

“নেক্সট ভেঞ্চার্স ও ফান্ডেডনেক্সটের সঙ্গে সম্পৃক্ততায় বাংলাদেশে অসাধারণ এক সফর কাটালাম। এখানকার মানুষ, তাদের ভালোবাসা, যত্ন এবং অতুলনীয় আতিথেয়তায় আমার হৃদয় সত্যিই বিগলিত। নিকট ভবিষ্যতে এই সুন্দর দেশটিতে ফিরে আসতে আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষায় থাকব।”

“বাজপাখি” নামটি ও বাংলাদেশের প্রতি তীব্র ভালোবাসা তুলে ধরে এমিলিয়ানো বলেছেন, “পরের সফরের আগ পর্যন্ত আমি আপনাদের কাছ থেকে বিদায় নিলেও এখানে হৃদয়ের একটি অংশ রেখে যাচ্ছি। আমি চিরকাল বাংলাদেশ বাজপাখি হিসেবে জাদুমুগ্ধ হয়ে থাকব।”

About

Popular Links