Thursday, May 23, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ফুটবল পরাশক্তি হতে শরিয়া আইন পাল্টাছে সৌদি আরব?

ফুটবলারদের জন্য ‘লিভ টুগেদার’ নীতি শিথিল করেছে মুসলিম অধ্যুষিত দেশটি। তাদের গ্যালারিতে দেখা যায় স্বল্পবসনা বিদেশি দর্শকদের

আপডেট : ২২ আগস্ট ২০২৩, ০৪:১৪ পিএম

কয়েক বছর আগেও সৌদি আরবের ফুটবল ছিল গড়পরতা মানের। আর এখন দেশটির লিগে আছেন হালের সেনসেশন নেইমার, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো থেকে করিম বেনজেমা, সাদিও মানের মতো তারকারা।     

ফুটবল পর্যবেক্ষকদের মতে, বিপুল পেট্রোডলার বিনিয়োগ করা সৌদি আরব আগামীতে হয়ে উঠতে পারে ফুটবল পরাশক্তি। একের পর এক তারকা খেলোয়াড়ের উপস্থিতিতে এখন রমরমা তাদের ক্লাব ফুটবল। রোনালদোর আল নাসরে যোগ দেওয়া ছিল এ প্রবণতার শুরু। এরপর সৌদি ক্লাব আল ইতিহাদে যোগ দেন ব্যালন ডি’অর জয়ী তারকা করিম বেনজেমা। এ তালিকায় সর্বশেষ সংযোজন নেইমার। লিভারপুর তারকা ব্রাজিলের ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার ফ্যাবিনহো ইতোমধ্যে নাম লিখিয়েছেন আল ইতিহাদে।

ফুটবল সমঝদাররা মনে করেন, অত্যাধিক অর্থ দিয়ে ফুটবলার কিনে সৌদি আরব ফুটবলের বাজার বদলে দিয়েছে। সামনে এ প্রবণতা আরও প্রকট হবে। ইউরোপের ক্লাবগুলোর জন্য যা এক ধরনের অশনী বার্তা। সময়ের বাস্তবতা হচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যের এই দেশটি শক্তিশালী একটি লিগ তৈরি করতে চায়। সে লিগের দলগুলো ইউরোপীয় লিগের অন্য ক্লাবগুলোর তুলনায় বেশি খরচ করতে পারছে।

সৌদি ক্লাব আল নাসরের হয়ে খেলছেন পর্তুগিজ মহাতারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো/এএফপি

এখানেই শেষ নয়। ফুটবলার ধরে রাখতে সম্প্রতি সৌদি আরব দেশটিতে বিরাজিত তথাকথিত শরিয়া আইনও পাল্টাচ্ছে। নেইমারের জন্য ‘‘লিভ টুগেদার’’ নীতি শিথিল করেছে মুসলিম অধ্যুষিত দেশটি। সৌদি আরবের ইসলামি শরিয়া অনুযায়ী,  দেশটির কোনো নাগরিক অবিবাহিত অবস্থায় অন্য নারীর সঙ্গে বসবাস করতে পারবেন না। অথচ সৌদি ক্লাব আল-হিলালের সঙ্গে চুক্তিতে সেই সুবিধাও পাচ্ছেন নেইমার। তার অগণিত বান্ধবী এবং প্রেমিকা ব্রুনো বিয়ানকার্দির সঙ্গে সৌদি আরবে থাকতে আর সমস্যা হচ্ছে না। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকেও একই রকম সুবিধা দেওয়া হয়েছিল। বান্ধবী জর্জিনা রদ্রিগেজকে বিয়ে না করেই সৌদিতে একসঙ্গে আছেন তারা।

সৌদি বলতেই যেখানে নারীদের পর্দা প্রথা অবধারিত মনে করা হয়, সেখানে ফুটবলারদের সঙ্গে থাকা নারীরা ব্যতিক্রম। সৌদি নারীদের জন্য নির্ধারিত ‘‘আবায়া’’ পোশাকের বাধ্যবাধকতা তাদের বেলায় থাকছে না। এ কারণেই বিভিন্ন দেশ থেকে আসা ফুটবলারদের স্ত্রী কিংবা বান্ধবীদের স্বল্প বসনে দেখা যাচ্ছে স্টেডিয়ামের ভিআইপি গ্যালারিতে।

এভাবেই খেলার সঙ্গে চলা অবধারিত প্রমোদে আছে রাজতান্ত্রিক দেশটি। যেখানে আইন হয়ে উঠেছে কর্তৃপক্ষের যা খুশি তাই করার হাতিয়ার। এক দেশে চলছে দুই আইন। যেন মুদ্রার ঝনঝনাতিতে হেলে পড়ছে বিধান। ফুটবল পরাশক্তি হতে সৌদির এমন রূপান্তর পুঁজিতান্ত্রিক ভোগবাদীতাকেই চাক্ষুষ দেখায়।

About

Popular Links