Tuesday, June 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

কর্তোয়াকে ছাড়াই ইউরো খেলতে যাচ্ছে বেলজিয়াম

কোচের মতে, ইউরোর জন্য প্রস্তুত নন তিনি

আপডেট : ২৮ মে ২০২৪, ০৭:৫০ পিএম

ইনজুরির কারণে দীর্ঘ দিন মাঠের বাইরে ছিলেন বেলজিয়ান গোলরক্ষক থিবো কর্তোয়া। চোট কিছুটা কাটিয়ে এক মৌসুম পরে ফিরে পেয়েছেন ফিটনেস। তবে তাকে ২০২৪ সালের বেলজিয়ামের ইউরো স্কোয়াডে রাখা হয়নি।

২০২৩ সালের আগস্টে মৌসুম শুরুর আগ মুহূর্তে রিয়াল মাদ্রিদের অনুশীলনে গুরুতর চোটে পড়েন তিনি। পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর জানা যায় হাঁটুর লিগামেন্ট ছিঁড়ে গেছে তার। এরপর চিকিৎসকের ছুরির নিচেও যেতে হয় তাকে।

এ বছরের ফেব্রুয়ারিতে জানা যায়, কর্তোয়ার সুস্থতার গতি নিয়ে দারুণ আশাবাদী ক্লাব। ভীষণ ইতিবাচক ছিলেন তিনি নিজেও। পুনর্বাসনের অংশ হিসেবে যোগ দিচ্ছিলেন অনুশীলনে। সেখানেই আবারও দুঃসংবাদ। এপ্রিলে ফেরার আশা করা কর্তোয়া ১৯ মার্চ আবারও চোট পান। আগের হাঁটু সেরে ওঠার পর ভালো থাকা হাঁটুতে চোট পান তিনি। ফলে ফের মাঠের বাইরে।

তবে সাম্প্রতিককালে কিছুটা সেরে উঠলে তাকে আবারও মাঠে নামানো হয়। লা লিগায় মাদ্রিদের শেষ পাঁচটি খেলার চারটির শুরুর একাদশে ছিলেন তিনি।

বেলজিয়াম কোচ ডোমেনিকো টেডেস্কো বলেছেন, ‘‘সে আমার প্রতি খুবই সৎ ছিল। সে তার শরীর জানে। তিন বা চার ম্যাচ খেলা এক জিনিস, কিন্তু ইউরো খেলা আরেক জিনিস।’’

কোচ বলেন, ‘‘তিনি ইউরোর জন্য প্রস্তুত নন। যারা সক্ষম তাদের সাথে আমাদের খেলতে হবে।’’

ইউরোর দল বাছাইয়ে কোচকে উলফসবার্গের কোয়েন কাস্টিলস, নটিংহাম ফরেস্টের ম্যাটজ সেলস ও লুটন টাউনের টমাস কামিনস্কির মধ্যে একজনকে বেছে নিতে হতো।

এদিকে, অভিজ্ঞ অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ ডিফেন্ডার বা মিডফিল্ডার অ্যাক্সেল উইটসেলকে ৩৫ বছর বয়সে দলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

এমনকি ৩৭ বছর বয়সী অ্যান্ডারলেখ্ট সেন্টার-ব্যাক জ্যান ভার্টোনগেন ও ১৯ বছর বয়সী অ্যাটলেটিকো মিডফিল্ডার আর্থার ভার্মেরেনকে দলে ডাকেন কোচ।

তিনি বলেন, ‘‘আমাদের তাকে দরকার। সে অভিজ্ঞ এবং তরুণদের সাহায্য করতে পারে, সে খেলুক বা কিছু না করুক।’’

টুর্নামেন্টের জন্য জার্মানি যাওয়ার আগে ৫ জুন মন্টেনিগ্রো ও 8 জুন লুক্সেমবার্গের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ খেলবে বেলজিয়াম। ইউরোতে গ্রুপ ই-তে তাদের সঙ্গে রয়েছে স্লোভাকিয়া, রোমানিয়া ও ইউক্রেন।

স্কোয়াড

গোলরক্ষক: কোয়েন কাস্টিলস (উলফসবার্গ/জিইআর), থমাস কামিনস্কি (লুটন টাউন/ইএনজি), ম্যাটজ সেলস (নটিংহাম ফরেস্ট/ইএনজি)

ডিফেন্ডার: টিমোথি কাসটেন (ফুলহাম/ইএনজি), ম্যাক্সিম ডি কুইপার (ক্লাব ব্রুগ), জেনো ডিবাস্ট (অ্যান্ডেরলেখ্ট), ওয়াউট ফায়েস (লিসেস্টার সিটি/ইএনজি), থমাস মিউনিয়ার (ট্রাবজনস্পর/টিইউআর), আর্থার থিয়েট (রেনেস/এফআরএ), জানুয়ারী ভার্টংহেন (অ্যান্ডেরলেখ্ট), অ্যাক্সেল উইটসেল (অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ/ইএসপি)।

মিডফিল্ডার: কেভিন ডি ব্রুইন (ম্যানচেস্টার সিটি/ইএনজি), ওরেল মাঙ্গালা (লিয়ন/এফআরএ), আমাদু ওনানা (এভারটন/ইএনজি), ইউরি টাইলেম্যানস (অ্যাস্টন ভিলা/ইএনজি), আর্থার ভার্মেরেন (অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ/ইএসপি), অ্যাস্টার ভ্রাঙ্কক্স (উলফসবার্গ)।

ফরোয়ার্ড: জোহান বাকায়োকো (পিএসভি আইন্দহোভেন/এনইডি), ইয়ানিক ক্যারাস্কো (আল শাবাব/কেএসএ), চার্লস ডি কেটেলারে (আটালান্টা/আইটিএ), জেরেমি ডোকু (ম্যানচেস্টার সিটি/ইএনজি), রোমেলু লুকাকু (রোমা/আইটিএ) এবং ডোডি লুকেবাকিও (সেভিলা) লোইস ওপেন্ডা (আরবি লিপজিগ/জিইআর), লিয়েন্দ্রো ট্রসার্ড (আর্সেনাল/ইএনজি)।

About

Popular Links