Thursday, May 30, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

পাবনায় গর্ভবতী নারীকে গণধর্ষণ: চার আসামির আত্মসমর্পণ

তাদের রিমান্ড আবেদন করবে পুলিশ

আপডেট : ০৮ মার্চ ২০২৪, ০১:৩৩ পিএম

পাবনার আমিনপুর উপজেলায় স্বামীকে জিম্মি করে গর্ভবতী নারীকে গণধর্ষণের মামলায় চার আসামি আদালতে আত্মসমর্পণ করেছে। তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়েছেন বিচারক। 

বৃহস্পতিবার (৭ মার্চ) বিকেলে পাবনার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আমিনপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. আবদুল কুদ্দুস ঢাকা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলার মোট আসামি ছয়জন। তাদের মধ্যে আত্মসমর্পণ করেছে- মো. শরীফুল (২৪), রাজীব সরদার (২১), লালন সরদার (২০) ও  সিরাজুল (২৩)।

এসআই আবদুল কুদ্দুস বলেন, “বৃহস্পতিবার আসামিরা আদালতে আত্মসমর্পণ করলে বিচারক তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠান। আনুষ্ঠানিকভাবে কাগজপত্র হাতে পেলে আদালতের কাছে তাদের রিমান্ড চাইবে পুলিশ।”

মামলার বাদী ও ভুক্তভোগী নারীর স্বামী বলেন, “আমিও শুনেছি চার আসামিকে নাকি কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আমি তাদের উপযুক্ত শাস্তি চাই। আমরা এখনও নিরাপত্তাহীনতায় আছি। মাঝেমধ্যে কিছু অচেনা লোকজন গ্রামে এসে মানুষের কাছে আমার ব্যাপারে খোঁজখবর নিচ্ছে। নানা কথাবার্তা ছড়িয়ে দিয়ে যাচ্ছে।”

গত ২৩ ফেব্রুয়ারি দিবাগত রাত ১২টার দিকে আমিনপুরের সাগরকান্দি ইউনিয়নে ওয়াজ মাহফিল থেকে ফেরার পথে ওই দম্পতির গতিরোধ করে ছয়জন। স্বামীকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ওই নারীকে ধর্ষণ করে অভিযুক্তদের দুইজন। একপর্যায়ে নির্যাতিত নারীর স্বামী জিম্মি অবস্থা থেকে ছুটে স্থানীয়দের জানান। তারা দলবদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলে গেলে অভিযুক্তদের একজনকে আটক করে গণধোলাই দেন, পালিয়ে যায় বাকি অভিযুক্তরা। ভুক্তভোগী নারীকে স্থানীয় পল্লি চিকিৎসকের কাছে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পরদিন (২৪ ফেব্রুয়ারি) এ ঘটনায় ছয়জনের নামে মামলা করেন ভুক্তভোগীর স্বামী। ১৩ দিনেও আসামিদের গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। ১৪ দিনের মাথায় তাদের মধ্যে চারজন আদালতে আত্মসমর্পণ করে। এখনও দুই আসামি পলাতক।

 

About

Popular Links