Sunday, May 19, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

চ্যাটজিপিটি দিয়ে লেখা উপন্যাসে পুরস্কার পেলেন জাপানি লেখক

ভবিষ্যতেও কৃত্রিম বৃদ্ধিমত্তার ব্যবহার চালিয়ে যাবেন বলে জানিয়েছেন ওই লেখক

আপডেট : ২০ জানুয়ারি ২০২৪, ০৯:৩৮ পিএম

জাপানের অন্যতম মর্যাদাপূর্ণ “আকুতাগাওয়া” সাহিত্য পুরস্কার পেয়েছেন দেশটির জনপ্রিয় লেখক রি কুদান। তবে এরপর তিনি স্বীকার করেছেন যে, পুরস্কার পাওয়া উপন্যাসটি লিখতে তিনি ওপেনএআইয়ের তৈরি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাপ্রযুক্তির প্রোগ্রাম চ্যাটজিপিটির সহায়তা নিয়েছেন।

গত বুধবার (১৭ জানুয়ারি) ৩৩ বছর বয়সী কুদানকে “দ্য টোকিও টাওয়ার অব সিম্প্যাথি” উপন্যাসের জন্য প্রতিশ্রুতিশীল লেখক হিসেবে পুরস্কার দেওয়া হয়।

পুরস্কার পাওয়ার পর এক সংবাদ সম্মেলনে কুদান বলেছেন, ওই বইটির প্রায় ৫% কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার (এআই) সহায়তায় লেখা হয়েছে।

কুদান বলেন, “আমি আমার সৃজনশীলতা দিয়ে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সঠিক ব্যবহারের চেষ্টা করেছি।”

কুদান জানান, ব্যক্তিগত জীবনেও যেসব সমস্যাগুলোর কথা তিনি কাউকে বলতে পারবেন না সেটা তিনি চ্যাটজিপিটির সঙ্গে পরামর্শ করেন।

এ বিষয়ে লেখক ও পুরস্কার কমিটির সদস্য কেইচিরো হিরানো এক্সে (টুইটার) বলেছেন, “নির্বাচন কমিটি কুদানের এআইয়ের ব্যবহারকে সমস্যা হিসেবে দেখছে না।”

তিনি বলেন, “রি কুদানের পুরস্কার নিয়ে ভুলভাবে উপস্থাপন করা হচ্ছে। তার বইটি পড়লে আপনারা স্পষ্ট হবেন। কারণ তার বইয়ে এআই ব্যবহারের কথা উল্লেখ ছিল। যদিও এটি ভবিষ্যতের জন্য হুমকি হতে পারে তবে এক্ষেত্রে কোনো সমস্যা নেই।”

তবে কুদানই প্রথম কেউ নন যিনি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহার করে বিতর্কের জন্ম দিলেন। গত বছর বার্লিনভিত্তিক ফটোগ্রাফার বরিস এলডাগসেন এআই প্রযুক্তি ব্যবহার করে ক্রিয়েটিভ ফটো বিভাগে জয়ী হয়েছিলেন। তবে পরবর্তীতে বিষয়টি জানাজানি হলে তার কাছ থেকে সনি ওয়ার্ল্ড ফটোগ্রাফি অ্যাওয়ার্ডটি প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।

তিনজন লেখক এর আগে ওপেনএআইয়ের বিরুদ্ধে মামলাও করেছিলেন।

About

Popular Links