Thursday, May 30, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ লড়াইয়ের পর দাবার বিশ্বচ্যাম্পিয়ন কার্লসেন

ফাইনালে ভারতের তরুণ বিস্ময়বালক রমেশবাবু প্রজ্ঞানন্দকে টাইব্রেকারে হারিয়েছেন নরওয়েজিয়ান এই দাবাড়ু

আপডেট : ২৪ আগস্ট ২০২৩, ০৯:২০ পিএম

একদিকে অভিজ্ঞ ম্যাগনাস কার্লসেন আর অন্যদিকে তরুণ প্রতিভাবান রমেশবাবু প্রজ্ঞানন্দ। কার্লসেন যেখানে দাবার সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়ন, সেখানে প্রজ্ঞানন্দ সদ্যই দাবার বিশ্বমঞ্চে পা রেখেছেন। ২০২৩ সালের দাবার বিশ্বকাপ ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল দুজন।

অভিজ্ঞতায় আকাশ-পাতাল ব্যবধান থাকলেও বৃহস্পতিবার (২৪ আগস্ট) আজারবাইজানের রাজধানী বাকুতে বিশ্বকাপ দাবার ফাইনালে কার্লসেন ও প্রজ্ঞানন্দের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছে। শেষ পর্যন্ত টাইব্রেকারে গড়ানো ম্যাচে জয়লাভ করে বিশ্বকাপের শিরোপা জিতেছেন নরওয়ের কার্লসেন।

মঙ্গলবার ও বুধবারে কার্লসেন ও প্রজ্ঞানন্দের মধ্যকার দাবা বিশ্বকাপ ফাইনালের প্রথম দুই রাউন্ড ছিল অমীমাংসিত। টাইব্রেকারের প্রথম রাউন্ডে দুটি র‍্যাপিড গেমেই অগ্রগামিতার সুবাদে শিরোপা বগলদাবা করেন কার্লসেন।

র‍্যাপিড গেমে জয়ের জন্য প্রতি খেলোয়াড় ২৫ মিনিট করে সময় পেয়েছেন। সঙ্গে প্রতিটি চালের জন্য ১০ সেকেন্ডের ইনক্রিমেন্ট পান দুই দাবাড়ু। র‍্যাপিড দাবা শেষেও চ্যাম্পিয়নকে পাওয়া না গেলে টাইব্রেকার পর্ব গড়াতো দ্বিতীয় ধাপে। 

বিশ্বনাথন আনন্দের পর প্রথম ভারতীয় হিসেবে দাবার বিশ্বকাপ জেতার হাতছানি ছিল প্রজ্ঞানন্দের সামনে। গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে কার্লসেনকে মাত্র ৩৯ চালে হারিয়ে সাড়া ফেলে দিয়েছিলেন এই কিশোর দাবাড়ু।

তবে দাবার বিশ্বচ্যাম্পিয়ন না হতে পারলেও প্রজ্ঞানন্দের প্রাপ্তিও কম না। ববি ফিশার ও কার্লসেনের পর তৃতীয় সর্বকনিষ্ঠ দাবাড়ু হিসেবে ক্যান্ডিডেট দাবায় অংশ নেওয়ার সুযোগ পেয়েছেন এই ভারতীয়। ক্যান্ডিডেট টুর্নামেন্টে তার সামনে আছে ডি লিরেনকে চ্যালেঞ্জের সুযোগ।

About

Popular Links