Friday, May 31, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মাতৃভাষাকে আক্রমণ না করার অনুরোধ অনিমেষ রায়ের

‘নাহুবো’ শিরোনামের গানটি নিয়ে  সমালোচনার পর এ বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানালেন অনিমেষ রায়

আপডেট : ২০ মার্চ ২০২৩, ০৩:৩৬ পিএম

কোক স্টুডিও বাংলার প্রথম সিজনের সফলতার পর দ্বিতীয় সিজনকে ঘিরে শ্রোতা এবং সঙ্গীতানুরাগীদের বাড়তি আগ্রহ ছিল। তবে গত ১৪ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হওয়া কোক স্টুডিও বাংলার দ্বিতীয় সিজন এখন সেই আগ্রহ পুরোপুরি পূরণ করতে পারেনি। প্রথম গান মুড়ির টিন দর্শক জনপ্রিয়তা পেলেও মেঘদল ও জহুরা বাউলের সমন্বয়ে বনবিবি শ্রোতাদের প্রত্যাশা পূরণ করতে ব্যর্থ হয়।

শনিবার (১৮ মার্চ) প্রকাশিত হয়েছে কোক স্টুডিও বাংলার দ্বিতীয় সিজনের তৃতীয় গান নাহুবো। হাজং ভাষায় গানটি গেয়েছেন প্রথম সিজনের নাসেক নাসেক দিয়ে আলোড়ন তোলা অনিমেষ রায়। তার সঙ্গে র‍্যাপশিল্পী হিসেবে পারফর্ম করেছেন কক্সবাজারের কন্যা ডটার অব কোস্টাল নামে পরিচিত সোহানা রহমান। তবে প্রকাশের পর গানটি ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছে।

সমালোচনার পরিপ্রেক্ষিতে অনিমেষ রায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বলেন, “আমি একজন বাঙালি এবং বাংলাদেশি। যাই হোক, আমি হাজং ভাষাভাষীও বটে। জন্ম থেকে আমার সম্প্রদায়ের মাধ্যমে আমি এ ভাষা শিখেছি। পরে বড় হওয়ার পর বুঝলাম আমাদের রাষ্ট্রভাষা বাংলা। তাই আমি বাংলা শিখতে শুরু করলাম। এরপর থেকে আমি বাংলা ভাষায়ই মানুষের সঙ্গে অধিকাংশ কথা বলেছি।”

তিনি আরও বলেন, “শেষ কবে বাংলা ছাড়া অন্য ভাষায় কথা বলেছি, তা নিজেরও মনে নেই। তবে এ বিষয়ে তার বা হাজং সম্প্রদায়ের কোনো দুঃখ নেই। কারণ তিনি বাঙ্গালী এবং দুটি ভাষাই বিভিন্ন উপায়ে হৃদয়ে ধারণ করা।”

অনিমেষ তার পোস্টে আরও বলেন, “হাজং ভাষার নিজস্ব বর্ণমালা নেই। হয়তো একদিন আমাদের এক সেট নিজস্ব বর্ণমালা থাকবে। তাই অনেক দিন ধরেই আমি আমার এ মাতৃভাষাকে আমার সঙ্গীতের মাধ্যমে সংরক্ষণের চেষ্টা করছি। কোক স্টুডিও বাংলা এখানে আমাকে অনেক সাহায্য করেছে।”

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নাহুবো শিরোনামের গানটি নিয়ে সমালোচনায় হতাশা এবং দুঃখপ্রকাশ করে এ সঙ্গীত তারকা বলেন, “আমি জানি ভাষাগত কারণে অনেকেরই গানটি বুঝতে অসুবিধা হচ্ছে। এজন্য আমি দুঃখিত। যাই হোক, কোনো নেতিবাচক বা খারাপ শব্দ দিয়ে আমি এ গানটি কম্পোজ করিনি, যা আমার হাজং সম্প্রদায়ের জন্য লজ্জার কারণ হবে। তাই সবার প্রতি অনুরোধ, আমার মাতৃভাষা নিয়ে খারাপ কথা বলবেন না।”

অনিমেষ জানান, সব গান পছন্দ না হওয়াটাই স্বাভাবিক। তিনি তার সঙ্গীতের মাধ্যমে বাঙালি সংস্কৃতির বৈচিত্র্য প্রদর্শন করতে চান।

About

Popular Links