Thursday, May 30, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

অস্ট্রেলিয়ার সৈকতে ৫১ পাইলট তিমির মৃত্যু

অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডে পাইলট তিমিদের এমন ঘটনা অস্বাভাবিক কিছু নয়

আপডেট : ২৭ জুলাই ২০২৩, ১২:৪৯ পিএম

পশ্চিম অস্ট্রেলিয়ার একটি সমুদ্র সৈকতে আটকা পড়ে ৫০টিরও বেশি “পাইলট তিমি” মারা গেছে। তবে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তারা আশাবাদী যে, ওই দলের অন্য ৪৫টি তিমি বেঁচে থাকতে পারে।

মঙ্গলবার (২৫ জুলাই) পশ্চিম অস্ট্রেলিয়ার রাজধানী ও বৃহত্তম শহর পার্থের প্রায় ৪০০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে চেইনস বিচে প্রায় ১০০টি দীর্ঘ পাখনাযুক্ত পাইলট তিমি দেখা গিয়েছিল।

স্থানীয় বন্যপ্রাণী পরিষেবার স্বেচ্ছাসেবক এবং কর্মীদের প্রচেষ্টা সত্ত্বেও ওই তিমিগুলোর মধ্যে ৫১টি রাতারাতি মারা যায়।

ঘটনাস্থলে কাজ করা স্বেচ্ছাসেবকদের প্রধান পিটার হার্টলি জানিয়েছেন, বেঁচে থাকা তিমিগুলি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। পুরোপুরিভাবে সুস্থ হওয়ার পর সবগুলোকে ছেড়ে দেওয়া হবে। স্বেচ্ছাসেবকরা তাদের পানিতে পালাতে সাহায্য করবে।

একজন মুখপাত্র বলেছেন, “মানুষের শতশত সহায়তায় পার্ক এবং বন্যপ্রাণী পরিষেবার কর্মীরা অভিভূত হয়েছেন। তবে আমাদের যথেষ্ট স্বেচ্ছাসেবক রয়েছেন। জনসাধারণের উচিত নিরাপত্তার কারণে সৈকত থেকে দূরে থাকা।”

বন্যপ্রাণী গবেষক ভেনেসা পিরোত্তা বলেন, “তিমিগুলো কেন তীরে এসেছিল তার কারণ এখনও অজানা। সৈকতে আসার পর তাদের আচরণ অস্বাভাবিক। হয়তো কোনো আক্রমণাত্মক তিমির তাড়া খেয়ে তারা সৈকতে চলে এসেছিল।”

অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডে পাইলট তিমিদের সদলবলে আটকা পড়ার ঘটনা অস্বাভাবিক কিছু নয়। গত অক্টোবরে, নিউজিল্যান্ডের প্রত্যন্ত চ্যাথাম দ্বীপপুঞ্জের সমুদ্র সৈকতে আটকে পরে প্রায় ৫০০ পাইলট তিমি মারা যায়।

About

Popular Links