Friday, June 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

বরিশালবাসীর কাছে সিটি কর্পোরেশনের পাওনা ৩০০ কোটি টাকা

বিসিসির মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পাঁচ মাস পর দায়িত্ব বুঝে পেয়ে এ কথা বলেন মেয়র খোকন সেরনিয়াবাত

আপডেট : ১৪ নভেম্বর ২০২৩, ০৭:১৩ পিএম

বরিশালের নাগরিকদের কাছে সিটি কর্পোরেশনের ৩০০ কোটি টাকা পাওনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন বিসিসির নবনির্বাচিত মেয়র আবুল খায়ের আবদুল্লাহ ওরফে খোকন সেরনিয়াবাত।

তিনি বলেন, “সিটি কর্পোরেশনের তহবিলে মাত্র ১২ কোটি টাকা পাওয়া গেছে। অন্যদিকে বরিশালের নাগরিকদের কাছে বিসিসির পাওনা ৩০০ কোটি টাকা।”

মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) বিকেলে নগর ভবনের ফজলুল হক এভিনিউর সামনে নির্মিত অস্থায়ী মঞ্চে এক সভায় তিনি এ কথা বলেন।

বিসিসি মেয়র হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর খোকন সেরনিয়াবাত বলেন, “নগর কার্যালয়ে কোনো প্রশাসনিক কাঠামো নেই।

তিনি বলেন, “আমরা নাগরিকদের সেবা দিতে সিটিকে স্মার্ট সিটি গড়তে চাই। পরিচ্ছন্ন, পরিকল্পিত, সুসজ্জিত ও বাসযোগ্য নগরী গড়তে নাগরিকদের সহায়তা প্রয়োজন।”

তিনি আরও বলেন, “আজ আনুষ্ঠানিকভাবে মেয়র হিসেবে পবিত্র দায়িত্ব নিলাম। আমি নগরবাসীর কল্যাণ ও উন্নয়নে তাদের সহযোগিতা ও সহযোগিতায় কাজ করে যাবো। আমি প্রতিশোধে বিশ্বাস করি না। নাগরিকদের সেবা করার জন্য বিসিসির কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি।”

তিনি বলেন, “বরিশালের মানুষের দুর্ভোগ অনুধাবন করে আমি মেয়র হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার আগেই প্রধানমন্ত্রী প্রায় ৮০০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেন। তাই বরিশালের নাগরিকদের পক্ষ থেকে তার প্রতি আমার কৃতজ্ঞতা।”

বরিশাল সিটি কর্পোরেশন আয়োজিত দায়িত্ব গ্রহণ অনুষ্ঠানে বিভাগীয় কমিশনার শওকত আলীর সভাপতিত্বে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক, বরিশাল-২ আসনের সংসদ সদস্য শাহে আলম, বরিশাল-৪ আসনের সংসদ সদস্য পঙ্কজ নাথ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও এতে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য হাফিজ মল্লিক, সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য রুবিনা মীরা, বিসিসির দায়িত্বপ্রাপ্ত সেক্রেটারি মাসুমা আক্তার, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তালুকদার মো. ইউনুস, জেলা প্রশাসক শহিদুল ইসলাম, বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার সাইফুল ইসলাম ৩০টি ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও অন্যান্য প্রশাসনিক ও রাজনৈতিক নেতারা উপস্থিত ছিলেন। মহানগর ছাড়াও বিভিন্ন উপজেলা থেকেও আওয়ামী লীগের কর্মসূচিতে যোগ দেন।

স্বাগত অনুষ্ঠানের পর বিসিসি মেয়র প্রধান নির্বাহী কার্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (সিইও) মাসুমা আক্তারের কাছ থেকে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। অনুষ্ঠান শেষে আবুল খায়ের আবদুল্লাহ নির্বাচিত কাউন্সিলরদের নিয়ে নগর ভবনে প্রবেশ করেন।

বিসিসির মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পাঁচ মাস পর তিনি দায়িত্ব বুঝে পেলেন।

মেয়াদ শেষ হওয়ার পাঁচ দিন আগে ২০২২ সালের ৯ নভেম্বর বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বিদায়ী মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ পদত্যাগ করেন। সাবেক মেয়র ও তার বাবা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সেরনিয়াবাত আবুল হাসনাত আবদুল্লাহসহ ও তার অনুসারীরা অনুষ্ঠানে অনুপস্থিত ছিলেন।

About

Popular Links