Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

তুরস্কে মন্ত্রণালয়ের সামনে আত্মঘাতী হামলা

দুই হামলাকারী একটি গাড়িতে করে এসে হামলা চালায়

আপডেট : ০১ অক্টোবর ২০২৩, ০৫:৪৯ পিএম

তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় পার্লামেন্ট ভবন ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সামনে আত্মঘাতী হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে হামলাকারী দুইজন নিহত ও দুই পুলিশ কর্মকর্তা আহত হয়েছেন।

রবিবার (১ অক্টোবর) স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

তুর্কি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আল ইয়ারলিকায়ী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, “আঙ্কারায় তুরস্কের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বাইরে বিস্ফোরণ ও সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে। দুই হামলাকারী একটি গাড়িতে করে এসে হামলা চালায়। এতে দুই পুলিশ কর্মকর্তা আহত হন।”

তিনি আরও বলেন, “হামলাকারীদের মধ্যে একজন আত্মঘাতী বিস্ফোরণে নিজেকে উড়িয়ে দিয়েছে। অপরজনকে হত্যা করা হয়েছে।”

তবে এ ব্যাপারে তিনি বিস্তারিত তথ্য দেননি।

বিকেলে পার্লামেন্টের নতুন অধিবেশন বসার কয়েক ঘণ্টা আগে এমন ঘটনা ঘটল। হামলাকারীরা কে বা কারা এ বিষয় কর্তৃপক্ষ এখনও নিশ্চিত নয় বলেও জানানো হয়েছে।

তুরস্কের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তার বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, আঙ্কারার দক্ষিণ-পূর্বের ২৬০ কিলোমিটার (১৬১ মাইল) দূরের শহর কায়সারি থেকে চালককে হত্যা করে হামলাকারীরা গাড়িটি ছিনতাই করে।

তিনি জানান, দুই পুলিশ কর্মকর্তার মধ্যে একজন একজন ছুরির আঘাতে আহত হয়েছেন।

এদিকে দেশটির সংবাদমাধ্যম বলছে, বিস্ফোরণের আগে গুলির শব্দ শোনা যায়। জরুরি সেবাকর্মীরা ঘটনাস্থলে গেছেন। আশপাশের কয়েকটি সড়কে যান চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আল ইয়ারলিকায়ী সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লিখেছেন, “শেষ সন্ত্রাসীকে না মারা পর্যন্ত আমাদের সংগ্রাম চলবে।”

আঙ্কারা পুলিশ জানায়, আরও বিস্ফোরণ ঠেকাতে নজরদারি জোরদার করা হয়েছে।

রবিবার পার্লামেন্ট অধিবেশনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়েপ এরদোয়ানের বক্তব্য রাখার কথা ছিল। এই অধিবেশনে তুরস্কের পার্লামেন্ট ন্যাটোতে সুইডেনের প্রবেশকে অনুমোদন করবে বলে আশা করা হচ্ছে।

কুর্দি জঙ্গিদের সুবিধা দেওয়ার অভিযোগে কয়েক মাস ধরেই সুইডেনের ন্যাটোতে যোগদানের আবেদনের বিরোধিতা করছিল তুরস্ক। মূলত নিষিদ্ধ ঘোষিত কুর্দিশ ওয়ার্কার্স পার্টির যোদ্ধারা দেশজুড়ে ঘন ঘন হামলা চালাত। গোষ্ঠীটি কর্তৃপক্ষের তীব্র চাপের মুখে পড়েছে। কর্তৃপক্ষ দলের নেতাদের কারাগারে বন্দি করেছে। তুরস্কের অভ্যন্তরে, সিরিয়া ও ইরাকের সীমান্তের ওপারে কুর্দি ঘাঁটির বিরুদ্ধে সামরিক অভিযান পরিচালনা করেছে এরদোয়ানের সরকার।

About

Popular Links